সিডনি: করোনা ভাইরাস আতঙ্কে যথন একের পর এক খেলাধুলোর আসর পরিত্যক্ত হচ্ছে অথবা স্তগিত হয়ে যাচ্ছে, সেখানে উলট পথে হেঁটে অস্ট্রেলিয়া বনাম নিউজিল্যান্ড প্রথম ওয়ান ডে অনুষ্ঠিত হল পূর্ব নির্ধারিত সূচি মেনেই৷ যদিও করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের সম্ভাবনা এড়াতে সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হল দর্শকশূন্য গ্যালারিতে৷ রুদ্ধদ্বার এসসিজিতে সিরিজের প্রথম ম্যাচে কিউয়িদের ৭১ রানে পরাজিত করে অজিরা৷

আরও পড়ুন: সৌরভের দিকে অভিযোগের আঙুল মুখ্যমন্ত্রীর

টস জিতে অস্ট্রেলিয়া অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন৷ নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৭ উইকেটের বিনিময়ে ২৫৮ রান তোলে অজিরা৷ দুই ওপেনার ফিঞ্চ ও ওয়ার্নারের সঙ্গে হাফ-সেঞ্চুরি করেন মার্নাস ল্যাবুশেন৷ জবাবে ব্যাট করতে নেমে নিউজিল্যান্ড ৪১ ওভারে ১৮৭ রানে অল-আউট হয়ে যায়৷

আরও পড়ুন: BREAKING: করোনা আতঙ্কে পরিত্যক্ত ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকা ওয়ান ডে সিরিজ

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ওয়ার্নার ৮৮ বলে ৬৭ রান করেন৷ তিনি ৮টি চার মারেন৷ ফিঞ্চ করেন ৭৫ বলে ৬০ রান৷ তিনি ৩টি চার ও ২টি ছক্কা হাঁকান৷ ল্যাবুেশন ৫২ বলে ৫৬ রানের অনবদ্য ইনিংস খেললেও মাত্র ২টি বাউন্ডারি মেরেছেন৷ এছাড়া মিচেল মার্শ ২৭ ও প্যাট কামিন্স অপরাজিত ১৪ রানের যোগদান রাখেন৷ ইশ সোধি ৩টি এবং লোকি ফার্গুসন ও মিচেল স্যান্টনার ২টি করে উইকেট দখল করেন৷

আরও পড়ুন: BREAKING: করোনা আতঙ্কে পিছিয়ে গেল IPL, শুরু হবে ১৫ এপ্রিল থেকে

কিউয়িদের হয়ে ব্যাট হাতে সর্বোচ্চ ৪০ রান করেন মার্টিন গাপ্তিল৷ টম লাথাম ৩৮, কলিন ডি’গ্র্যান্ডহোম ২৫ ও কেন উইলিয়ামসন ১৯ রান করে আউট হন৷ রস টেলর সাজঘরে ফেরেন ৪ রান করে৷ কামিন্স ও মার্শ ৩টি করে উইকেট নেন৷ ২টি করে উইকেট দখল করেন হ্যাজেলউড ও জাম্পা৷ ম্যাচের সেরা হয়েছেন মিচেল মার্শ৷ এই জয়ের সুবাদে ৩ ম্যাচের ওয়ান ডে সিরিজে অস্ট্রেলিয়া এগিয়ে যায় ১-০ ব্যবধান৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.