সিডনি: নাথান লায়নের দুরন্ত স্পিনে সিডনিতে পিঙ্ক টেস্টে নিউজিল্যান্ডকে ২৭৯ রানে হারাল অস্ট্রেলিয়া৷ সেই সঙ্গে তিন টেস্টের সিরিজে কিউয়িদের হোয়াইটাওয়াশ করল অজিবাহিনী৷ ফলে মরশুমে অপরাজিত অস্ট্রেলিয়া৷ অ্যাশেজ সিরিজ ড্র হওয়ার পর ঘরের মাঠে পাঁচটি টেস্টেই জিতেছে টিম পেইনের দল৷ দু’টি পাকিস্তান ও তিনটি নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে৷

সিরিজে শুরু থেকেই ব্যাটিং দাপট ছিল অজিদের৷ সেই সঙ্গে বোলারদের দাপটে লড়াই জারি রাখতে পারেনি নিউজিল্যান্ড৷ ৪১৬ রান তাড়া করতে গিয়ে মাত্র ১৩৬ রানে শেষে হয়ে যায় কিউয়িবাহিনী৷ ৫০ রান দিয়ে পাঁচটি উইকেট তুলে নেন লায়ন৷ ম্যাচে ১০ উইকেট নিয়ে অজিদের জয়ে বড় ভূমিকা নেন অভিজ্ঞ এই অফ-স্পিনার৷

পারথ ও মেলবোর্নের পর সিডনি টেস্টেও সিডনি টেস্টেও নাস্তানাবুদ কিউয়িবাহিনীর৷ এসসিজি-তে প্রথম ব্যাটিং করে মার্নাস ল্যাবুশেনের ডাবল সেঞ্চুরিতে ভর করে ৪৫৪ রান তুলেছিল অস্ট্রেলিয়া৷ কিন্তু লায়ন ও প্যাট কামিন্সের বোলিংয়ের সামনে ২৫৬ রানে শেষে হয়ে যায় নিউজিল্যান্ড ইনিংস৷ লায়ন পাঁচটি এবং কামিন্স তিনটি উইকেট নেন৷

প্রথম ইনিংসে ১৯৮ রানে এগিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংসে দু’ উইকেটে ২১৭ রান তুলে ডিক্লেয়ার্ড দেয় অস্ট্রেলিয়া৷ দ্বিতীয় ইনিংসে দুরন্ত সেঞ্চুরি করেন ডেভিড ওয়ার্নার৷ চারশোর বেশি রান তাড়া করতে নেমে ফের লায়নের সামনে আত্মসমর্পণ করেন কিউয়ি ব্যাটসম্যানরা৷ এই ইনিংসে লায়নকে সঙ্গ দেন মিচেল স্টার্ক৷ লায়ন পাঁচটি ও স্টার্ক তিনটি উইকেট নেন৷

ম্যাচ ও সিরিজের সেরা প্লেয়ার ল্যাবুশানে৷ পিঙ্ক টেস্টেই কেরিয়ারে প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি করেন তিনি৷ সম্প্রতি দারুণ ফর্মে থাকা ল্যাবুশেনে ২১৫ রানের ইনিংস খেলেন৷ পারথে সিরিজের প্রথম টেস্টে ১৪৩ রানের ইনিংস খেলেছিলেন ল্যাবুশেনে৷

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প