মুম্বই: বিরাট লজ্জার হার ভারতের৷ বিশ্বসেরা ফাস্ট বোলিং লাইন-আপকে কচুকাটা করে ভারতের বিরুদ্ধে ওয়ান ডে সিরিজের প্রথম ম্যাচ জিতে নিল অস্ট্রেলিয়া৷ মঙ্গলবার ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে কোহলি অ্যান্ড কোং-কে ১০ উইকেটে হারায় অজিবাহিনী৷ ভারতের বিরুদ্ধে রেকর্ড পার্টনারশিপ অস্ট্রেলিয়ার৷

৯ বছর আগে এই ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে দ্বিতীয়বার ওয়ান ডে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হয়েছিল মহেন্দ্র সিং ধোনির ভারত৷ কিন্তু এদিন সেই মাঠেই অস্ট্রেলিয়ার কাছে বিধ্বস্ত হল বিরাটের ভারত৷ ডেভিড ওয়ার্নার ও অ্যারন ফিঞ্চের দুরন্ত ব্যাটিংয়ে অসহায় আত্মসমপর্ম বিরাটের বোলারদের৷ ২৫৬ রান তাড়া করে হাসতে হাসতে ম্যাচ জিতে নেয় অস্ট্রেলিয়া৷ এটাই অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ভারতের সবচেয়ে খারাপ ওয়ান ডে পারফরম্যান্স৷

দুই ওপেনারের অপরাজিত সেঞ্চুরিতে টিম ইন্ডিয়ার বিরুদ্ধে হাসতে হাসতে ম্যাচ জিতে নিল অস্ট্রেলিয়া৷ মাত্র ৮৮ বলে সেঞ্চুরিতে পৌঁছন ওয়ার্নার৷ আর ১০৮ বলে সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন ক্যাপ্টেন ফিঞ্চ৷ ওয়ান ডে কেরিয়ারে এটি ১৮তম সেঞ্চুরি ওয়ার্নারের৷ দু’বার আম্পায়ারের ভুল সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে রিভিউ নিয়ে জীবন পান ওয়ার্নার৷ তারপর লক্ষ্যে অবিচল থেকে সেঞ্চুরিেত পৌঁছন বাঁ-হাতি অজি ওপেনার৷

ভারতের বিরুদ্ধে এটি অস্ট্রেলিয়ার সর্বোচ্চ ওপেনিং পার্টনারশিপ৷ এর আগে ভারতের বিরুদ্ধে অস্ট্রেলিয়ার এই দুই ওপেনারই বেঙ্গালুরুতে ২৩১ রান করেছিলেন৷ এদিন তাকে ছাপিয়ে নতুন রেকর্ড গড়েন ওয়ার্নার ও ফিঞ্চ৷ ২৫৮ রানের অবিভিক্ত পার্টনারশিপ গড়ে ম্যাচ জিতে নেয় অস্ট্রেলিয়া৷ ওয়ার্নার ১২৮ এবং ফিঞ্চ ১১০ রানে অপরাজিত থাকেন৷

এদিন টস জিতে ভারতকে প্রথমে ব্যাটিং করতে পাঠিয়েছিলেন অজি ক্যাপ্টেন ফিঞ্চ৷ ব্যাটিং অর্ডারে উল্লেখযোগ্য রদবদল করে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সফল হওয়ার রাস্তায় হাঁটতে নেমে শুরুতেই হঁচোট খায় ভারত৷ শেষমেশ ৪৯.১ ওভারে  ২৫৫ রানে গুটিয়ে যায় টিম ইন্ডিয়া৷ ফর্মে থাকা তিন জন ওপেনারকে প্রথম একাদশে জায়গা করে দিতে গিয়ে কোহলি নিজেকে ব্যাটিং অর্ডারের চার নম্বরে নামিয়ে আনেন৷ রোহিতের সঙ্গে ইনিংস শুরু করেন শিখর ধাওয়ান৷ রোহিত ১৫ বলে ১০ রান করে আউট হওয়ার পর তিন নম্বরে ব্যাট করতে নামেন লোকেশ রাহুল৷

ওপেনিং জুটিতে মাত্র ১৩ রান উঠলেও কেএলকে সঙ্গে নিয়ে বিপর্যয় রোধ করেন ধাওয়ান৷ দ্বিতীয় উইকেটের জুটিতে ১২১ রান যোগ করে ধাওয়ান-রাহুল ভারতীয় ইনিংসের ভিত গড়ে দেন৷ তবে লোকেশ ৬১ বলে ৪৭ ও ধাওয়ান দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৭৪ রান করে আউট হওয়ার পরেই ধস নামে ভারতীয় ইনিংসে৷ রাহুল ৪৭ রান করেন৷ দ্বিতীয় উইকেটের জুটিতে ১২১ রান যোগ করে ধাওয়ান-রাহুল ভারতীয় ইনিংসের ভিত গড়ে দেন৷ ধাওয়ান আউট হওয়ার পরেই ভারতীয় ইনিংসে ধস নামে৷ ঋষভ পন্ত ২৮, রবীন্দ্র জাদেজা ২৫, শার্দুল ঠাকুর ১৩, মহম্মদ শামি ১০ ও কুলদীপ যাদব ১৭৷