মেলবোর্ন: বিস্তীর্ণ অঞ্চল জুড়ে পুড়ছে দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়া। দাবানলের কড়াল গ্রাস ক্রমেই দানবীয় চেহারা নিচ্ছে। ঘরছাড়া হাজার হাজার মানুষের আশ্রয়স্থল ত্রাণ শিবির। এমন সময় অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিত হচ্ছে জনপ্রিয় ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট লিগ বিগ-ব্যাশ। অংশ নিচ্ছেন দেশের প্রথম সারির একাধিক ক্রিকেটার।

স্বাভাবিকভাবেই দেশের এমন কঠিন সময়ে চুপ থাকতে পারলেন না তাঁরা। বাইশ গজ থেকেই দাবানলে ক্ষতিগ্রস্থদের পাশে দাঁড়ানোর মানবিক বার্তা রাখলেন ক্রিস লিন, ডার্সি শট, গ্লেন ম্যাক্সওয়েলরা। চলতি বিগ ব্যাশে প্রত্যেক ছক্কা পিছু ২৫০ ডলার অর্থমূল্য দাবানলে ক্ষতিগ্রস্থদের তহবিলে দান করার কথা ঘোষণা করলেন ব্রিসবেন হিট অধিনায়ক লিন। টুইটারে প্রাক্তন নাইট তারকা লিখলেন, ‘বন্ধুরা, চলতি বছর বিগ ব্যাশ লিগে এবার আমি যত ছক্কা হাঁকাব, প্রত্যেক ছক্কা পিছু ২৫০ ডলার আমি দাবানলের জন্য রেড ক্রসের ত্রাণ তহবিলে দান করব। এখন বিশেষভাবে দেখা দরকার বিভিন্ন ক্ষেত্র থেকে কতজন অ্যাথলিট আসল নায়কদের পাশে এসে দাঁড়ায়, যারা নিজেদের প্রাণ বাঁচানোর লড়াই লড়ছে।’

ব্রিসবেন হিট অধিনায়ক লিনের আবেদনে সাড়া দিয়ে এগিয়ে এসেছেন আরও দুই অজি ক্রিকেটার গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ও ডার্সি শট। দাবানলের বিভীষিকায় ক্ষতিগ্রস্থদের ছক্কা পিছু ২৫০ ডলার দান করবেন তাঁরাও। টুইটারে লিনের প্রস্তাবকে সমর্থন করে ম্যাক্সওয়েল লেখেন, ‘আমিও তোমার সঙ্গে এই মহৎ উদ্যোগে সামিল হব। প্রত্যেক ছক্কা পিছু ২৫০ ডলার আমিও দান করব। যা সাহায্য করবে দেশের সাধারণ মানুষদের যারা দাবানলের সঙ্গে জীবনের বাজি লড়ছেন।’

শর্ট লেখেন, ‘ঠিক আছে, আমিও লিন এবং ম্যাক্সওয়েলের সঙ্গে রয়েছি। বিগ ব্যাশে প্রত্যেক ছক্কা পিছু ২৫০ ডলার আমিও রেড ক্রসের তহবিলে দান করব। যারা কঠিন সময় কাটাচ্ছে তাদের সাহায্যে এগিয়ে আসতে চাই।’ শুধু অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটাররাই নন, লিনের দেখাদেখি দাবানল ক্ষতিগ্রস্থদের সাহায্যে এগিয়ে এসেছেন দুই টেনিস তারকা নিকোলাস কিরিয়স ও সামান্থা স্তোসুর। চলতি সামারে অংশ নেওয়া টুর্নামেন্টগুলিতে প্রত্যেক এস পিছু ২০০ ডলার করে দান করবেন কিরিয়স। একইভাবে ক্ষতিগ্রস্থদের পাশে দাঁড়াবেন স্তোসুরও।

দাবানলের কারণে নিউ সাউথ ওয়েলসে জারি করা হয়েছে জরুরি অবস্থা। আগুনের গ্রাসে ক্ষতিগ্রস্থ এলাকা খালি করার কাজে নেমেছে প্রশাসন। পর্যটকদের জন্য সতর্কবার্তা জারি করে তৈরি করা হচ্ছে নয়া ট্যুরিস্ট লেবেল জোন। সারা দেশে এখনও অবধি ১৮ জনের মৃত্যুর খবর মিলেছে। গোটা ঘটনায় সমবেদনা প্রকাশ করে কালো ব্যাজ পরে সিডনিতে মাঠে নেমেছে অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডের ক্রিকেটাররা। দাবানলের ভয়াল গ্রাস জারি থাকবে এখনও বেশ কিছুদিন, জানিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন।