সিডনি: কিংবদন্তি অজি পেসার গ্লেন ম্যাকগ্রা’র উদ্যোগে প্রতি বছর সিডনিতে পালিত হয় পিঙ্ক টেস্ট৷ স্ত্রী জেনি বেস্ট ক্যানসারে মারা যাওয়ার পর থেকে তাঁর স্মৃতিতে ২০০৯-এ প্রথমবার সিডনি টেস্টকে পিঙ্ক টেস্ট আয়োজনের করেন ম্যাকগ্রা৷ কিংবদন্তি এই পেসারের উদ্যোগকে সমর্থন করে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া৷

প্রতি বছর পিঙ্ক সিডনি টেস্টে যে অর্থ ওঠে যা দান করা ম্যাকগ্রা ফাউন্ডেশনে৷ এই অর্থ কাজে লাগানো হয় বেস্ট ক্যানসারে আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য৷ এছাড়াও বেস্ট ক্যানসার সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেয় ম্যাকগ্রা ফাউন্ডেশন৷

পিঙ্ক টেস্ট ঘিরে এসসিজি-র গ্যালারি হয়ে ওঠে গোলাপি৷ দর্শকদের মধ্যেও এই টেস্ট ঘিরে চরম উন্মাদনা দেখা দেয়৷ এবার বছরের প্রথম টেস্টে নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে সিরিজ জিতে নেয় অস্ট্রেলিয়া৷

 পিঙ্ক টেস্টে দাপট দেখায় অজিরা৷ মার্নাস ল্যাবুশেনের দুরন্ত ডাবল সেঞ্চুরি এবং ডেভি়ড ওয়ার্নারের সেঞ্চুরি ও নাথান লায়নের ঘূর্ণিতে কিউয়িদের ২৭৯ রানে হারায় অস্ট্রেলিয়া৷

 সিডনি টেস্টের মতো লর্ডসেও বছরে একটি টেস্ট ‘রেড টেস্ট’ হিসেবে পালিত হয়৷ প্রাক্তন ইংল্যান্ড অধিনায়ক অ্যান্ড্রু স্টসের স্ত্রী রুথ ফুসফুসের ক্যানসারে মারা যাওয়ার পর থেকে লর্ডসেও একটি টেস্ট ‘রেড টেস্ট’-এর আয়োজন করে ইসিবি৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।