বেঙ্গালুরু: মুখ্যমন্ত্রী কুমারস্বামীর প্রকাশিত অডিও টেপ সম্পর্কে অবস্থান বদল করলেন কর্নাটকের বিজেপি রাজ্য সভাপতি বিএস ইয়েদুরাপ্পা৷ শুক্রবার অডিও টেপকে ভুয়ো বললেও এদিন অবশ্য অন্য দাবি করেন কর্ণাটকের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী৷ ইয়েদুরাপ্পা স্বীকার করে নেন প্রকাশিত অডিও টেপে যে গলা শোনা গিয়েছে তা তাঁর-ই৷

আরও পড়ুন: বড় প্রশ্নে বড় আপত্তি: সিবিআইয়ের কাছে MCQ দাবি রাজীব কুমারের

সম্প্রতি, বাজেট সেশনে বিধানসভা থেকে উধাও হয়ে যান একাধিক কংগ্রেস বিধায়ক। তারপরই বিজেপির বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ সামনে আনেন কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী কুমারস্বামী। গত শুক্রবার কুমারস্বামী প্রকাশিত অডিও রেকর্ডিং ক্লিপ অনুযায়ী, জেডিএস বিধায়ক নাগান্নাগৌড়াকে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছিলেন ইয়েদুরাপ্পা। তাঁকে ৫০ কোটি টাকার প্রস্তাব দেওয়া হয়। জেডিএস ও কংগ্রেস জোটের অভিযোগ বিধায়ক কেনা-বেচার নোংরা খেলায় মেতেছে বিজেপি৷ এটা অপরেশন লোটাসের একটা অংশ বিশেষ৷

কংগ্রেস থেকে বিধায়ক ভাঙাতে যে বিজেপি সবরকমভাবে চেষ্টা করছে, এমন অভিযোগ আগেও বারবার তুলেছে কংগ্রেস। কুমারস্বামীর প্রকাশিত অডিওতে এবারও ফের সেই একই অভিযোগ উঠল কর্নাটকে। বিজেপির বিরুদ্ধে কোটি কোটি টাকা খরচ করে হর্স ট্রেডিং-এর অভিযোগ।

অডিও টেপ প্রকাশের পরপরই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে সরব হন ইয়েদুরাপ্পা৷ ওই টেপে শুনতে পাওয়া গলা তাঁর নয় বলেই সেইদিন দাবি করেন ইয়েদুরাপ্পা৷ তিনি বলেছিলেন, ‘‘অভিযোগ প্রামাণিত হলে রাজনীতি থেকে অবসর নেবেন তিনি৷’’ এদিন অবশ্য সেই দাবি থেকে সরে আসেন গেরুয়া শিবিরের এই নেতা৷ তিনি জানান, ‘‘প্রকাশিত টেপে যে গলা শোনা যাচ্ছে সেটি আমারই৷ আমি নাগান্নাগৌড়ার ছেলের স্বরানাগৌড়ার সঙ্গে কথা বলেছিলাম৷ তবে প্রকাশিত টেপের বহু অংশ এডিট করে দেওয়া হয়েছে৷ এটা ঠিক নয়৷’’ ক্ষমতায় টিঁকে থাকতে কুমারস্বামী নোংরা রাজনীতি করছে বলে অভিযোগ করেন ইয়েদুরাপ্পা৷

আরও পড়ুন: মুখ্যমন্ত্রীকে আক্রমণ মোদীর

কর্নাটকের ক্ষমতা ঘিরে বিজেপি ও কংগ্রেস-জেডিএস জোটের বিরোধ তুঙ্গে৷ সেই বিতর্কে ইন্ধন দিয়েছিল রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী প্রকাশিত অডিও টেপ৷ এদিন ইয়েদুরাপ্পার দাবি টেপ বিতর্কে দক্ষিণী রাজ্যটির রাজনীতিতে নতুন মাত্রা যোগ করল বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা৷