বারাকপুর: ভাটপাড়ার আর্যসমাজ মোড়ে তৃণমূলকর্মীকে গুলি করার ঘটনায় বারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিংয়ের বিরুদ্ধে খুনের চেষ্টার মামলা রুজু করল পুলিশ। যদিও এই ঘটনায় তাঁর কোনও যোগ নেই বলে দাবি করেছেন অর্জুন সিং। পুলিশ উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবেই তাঁকে এই মামলার সঙ্গে জড়াচ্ছে বলে দাবি অর্জুনের।

বুধবার সকালে ভাটপাড়ার আর্যসমাজ মোড়ে তৃণমূল কার্যালয়ের সামনে দাঁড়িয়েই ফোনে কথা বলছিলেন যুব তৃণমূল নেতা ধর্মেন্দ্র সিং। সেই সময় বাইকে চেপে আসে দুই দুষ্কৃতী। ধর্মেন্দ্রকে লক্ষ্য করে কাছ থেকে গুলি চালায় দুষ্কৃতীরা। গুলি মাথার পিছনে লেগে বেড়িয়ে যায়।

দ্রুত বাইক নিয়ে এলাকা ছাড়ে দুষ্কৃতীরা। গুলি লাগার পরেই মাটিতে লুটিয়ে পড়েন ওই তৃণমূল নেতা। তাঁকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে নিয়ে যাওয়া হয় বারাকপুর বি এন বসু হাসপাতালে। অবস্থার অবনতিতে তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় কলকাতার বেসরকারি হাসপাতালে।

ফাইল চিত্র৷

এদিকে, তাঁর বিরুদ্ধে খুনের চেষ্টার মামলা রুজু প্রসঙ্গে অর্জুন সিং বলেন, ‘বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পুলিশ আমার বিরুদ্ধে ৮৭টি ফৌজদারি মামলা করেছে।’

অর্জুন সিং আরও বলেন, ‘এই গুলি চালানোর ঘটনায় তৃণমূলের ভিতরের গন্ডগোল রয়েছে। টাকা-পয়সাজনিত গন্ডগোল আছে। পুলিশতো সিসিটিভি দেখে দুষ্কৃতীদের ধরতে পারে।’

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ