কলকাতা: গত কয়েক মাসে যে কোনও উৎসবেই শিরোনামে নুসরত জাহান। কেন তিনি সিঁদুর খেললেন, কেন অষ্টমীতে অঞ্জলি দিলেন- এইসব প্রশ্নে বারবার এক শ্রেণির রোষের মুখে পড়েছেন নুসরত জাহান। এবার ক্ষোভের মুখে পড়লেন নবী দিবসে।

শনিবার ছিল ইদ-এ-মিলাদ-উন-নবী বা নবি দিবস। আর সেদিন নবি দিবসের শুভেচ্ছা জানিয়ে একটি ছবি পোস্ট করেছিলেন নুসরত। সেখানেই পরপর কমেন্টবক্সে নুসরতের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন অনেকে। একাংশের দাবি, নুসরত নাকি অনেক পাপ করেছেন। আর নবি দিবসের শুভেচ্ছা জানিয়ে সেই পাপক্ষয় সম্ভব নয়। তাঁর উচিৎ আল্লার কাছে দ্রুত ক্ষমা চাওয়া।

আরও পড়ুন: প্রকাশ্যে এল নুসরতের সিঁদুর মাখা ছবি, ‘লাভবাইট’ খুঁজে পেল নেটিজেনরা

কেউ বলেছেন, ”জাহান্নমের কথা ভেবে নিজেকে সময় থাকতে শুধরে নাও, মনে রেখো মৃত্যুর পর সঙ্গে কিছুই যাবে না।” কেউ আবার বলেছেন, নুসরতের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া উচিৎ। নুসরতকে ভন্ড বলেও উল্লেখ করেছেন অনেকে। যদিও অভিনেত্রী এসব কোনও মন্তব্যের জবাবেই মুখ খোলেননি।

সিঁথিতে সিঁদুর ও গলায় মঙ্গলসূত্র পরে লোকসভায় সাংসদ হিসেবে শপথ নিয়েছিলেন নুসরত জাহান। তখন থেকেই শুরু হয় কট্টরপন্থীদের ফতোয়া। তখনই তিনি স্পষ্ট করে দেন তিনি মুসলিমই থাকবেন। কিন্তু অন্যান্য ধর্মের উপরেও তাঁর শ্রদ্ধা থাকবে। কথা মতোই ইস্কনের রথ যাত্রয়া অংশ নিয়েছিলেন তিনি।

আরও পড়ুন: ধরা পড়ল নুসরতের প্লাস্টিক সার্জারি

এর পরে দুর্গা পুজোয়া অষ্টমীতে নিখিলকে নিয়ে অঞ্জলি দেন নুসরত। ফের তিনি কট্টরপন্থীদের আক্রমণের মুখে পড়েন। তিনি ইসলাম ধর্মের অবমাননা করছেন বলে অভিযোগ তোলে কট্টরপন্থীরা। এমনকী নুসরত যাতে তাঁর নাম বদলে ফেলেন, সেই দাবিও করেন তাঁরা। কিন্তু নুসরত জানিয়ে দেন, তিনি ঈশ্বরের বিশেষ সন্তান। তাই তাঁর কাছে ধর্মের থেকেও বড় মানবতাবাদ ও ভালোবাসা।