নয়াদিল্লিঃ  ঘাড়ের কাছে নিঃশ্বাস ফেলছে চিন।  ডোকালাম নিয়ে নতুন করে তৈরি হয়েছে জটিলতা।  এই অবস্থায় ভারত চিন সীমান্তের নিরাপত্তা ঠেলে সাজাচ্ছে ভারত।  পূর্ব সীমান্তে নিরাপত্তা শক্তিশালী করার জন্য ভারতীয় সেনাবাহিনী এই বছরেই নিজস্ব তৈরি আধুনিক অস্ত্রে মোড়া উন্নত মানের অ্যাটাক হেলিকপ্টার মোতায়েন করা হচ্ছে।

জানা গিয়েছে, অসমের উত্তর-পূর্ব অংশে ১০ টি এইচএল ধ্রুব এম কে-৪ এর একটি হেলিকপ্টার স্কোয়াড্রন মোতায়েন করা হবে”। পূর্ব সীমান্ত অঞ্চলে আগামী কয়েক মাসের মধ্যে কার্যকরী হতে যাওয়া অতিরিক্ত হেলিকপ্টার ঘাঁটি নির্মাণের সঙ্গে সঙ্গেই এই হেলিকপ্টার স্কোয়াড্রন মোতায়েন হবে। হিন্দুস্তান এরিনটিক্স লিমিটেডের তৈরি এই কপ্টার। এটি মাল্টি-রোল হেলিকটার।

স্বাভাবিকের চেয়ে বেশী উচ্চতায় অপারেশন চালানোতে একে অত্যন্ত কার্যকর বলা হচ্ছে। হেলিকপ্টারটি ২৩ মিলিমিটার টারেট বন্দুক দিয়ে সজ্জিত এবং তা ৭০ মিমি রকেট, মিস্ত্রাল এয়ার-টু-এয়ার মিসাইল, এয়ার-টু-গ্রাউন্ড ক্ষেপণাস্ত্র, হেলমেট পয়েন্টিং সিস্টেম এবং এন্টি ট্যাঙ্ক মিসাইল বহন করতে পারে। ভারতীয় সেনাবাহিনী বর্তমানে প্রায় ১০০ ধরনের হাল ধ্রুব হেলিকপ্টার রয়েছে।

সামরিক বিশ্লেষক ব্রিগেডিয়ার রুমেল দাহিয়া এক সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, “একটি নির্দিষ্ট সময় এবং স্থানে কোন দেশের সামরিক চাহিদা পূরণে তার কাছে থাকা যে কোনও অস্ত্র প্ল্যাটফর্ম বা সরঞ্জাম নিযুক্ত করাই স্বাভাবিক। হেলিকপ্টারগুলি পাহাড়ী এলাকার বেশী উপযোগী। আর সেই জন্যেই এই সিদ্ধান্ত।

- Advertisement -