ব্যাংককঃ বিভিন্ন সময়ে যারা থাইল্যান্ডে ঘুরতে যান তাদের জন্য সতর্কতা জারি করছে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক পর্যটন সংক্রান্ত ওয়েব সাইট৷ কারণ থাই ভূমির অভ্যন্তরীণ পরিস্থিতি ফের রক্তাক্ত৷ দেশটির ইয়ালা প্রদেশে প্রকাশ্যে হামলা চালাল জঙ্গিরা৷

এই হামলায় ঘটনাস্থলেই নিহত অন্তত ১৫ জন৷ জখম আরও অনেকে৷ নিহতের তালিকায় পুলিশ অফিসার ও গ্রামরক্ষী বাহিনির সদস্যরাও রয়েছেন৷

বিবিসি, রয়টার্সের মতো সংবাদ সংস্থার খবর, হামলার পরেই অতিরিক্ত সতর্কতা নেওয়া হয়েছে থাইল্যান্ডের বিভিন্ন জনপ্রিয় সৈকত ও পর্যটনস্থলগুলিতে৷ বিভিন্ন দেশের দূতাবাসের নিরাপত্তা বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে৷ বুধবারের  হামলায় রক্তাক্ত পরিস্থিতি৷

ইয়ালা প্রদেশটি থাইল্যান্ডের একেবারে দক্ষিণে অবস্থিত৷ এর সঙ্গে মিশে রয়েছে মালয়েশিয়ার সীমান্ত৷ ফলে হামলাকারীরা সীমান্ত পেরিয়ে মালয়েশিয়ার দিকে দুর্গম এলাকায় ঢুকে পড়তে বলেও আশঙ্কা৷


ইয়ালা প্রদেশের যেখানে গুলি চলেছে তাতে বেঁচে যাওয়া প্রত্যক্ষদর্শীরা জানাচ্ছেন, এলোপাথাড়ি গুলি চালাচ্ছিল আততায়ী৷ গুলিতে রক্তাক্ত হয়ে লুটিয়ে পড়ছেন পথচারীরা৷ ইয়ালা প্রদেশের প্রশাসনিক কর্তারা জানিয়েছেন, এই হামলার পিছনে জড়িত স্থানীয় জঙ্গি অথবা বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠনের কর্মীরা৷ তারা আগেও এমন নাশকতা চালিয়েছে৷ রয়টার্স জানাচ্ছে, হামলাকারীদের লক্ষ্য ছিল গ্রামটির রক্ষীরা৷ কারণ নিহতদের তালিকায় বেশিরভাগই সেই  রক্ষীবাহিনির সদস্য৷ পরিস্থিতি খুবই ভয়াবহ৷ সংবাদ মাধ্যম আল জাজিরা জানাচ্ছে,

ভয়ঙ্কর হামলায় ফের নড়ে গিয়েছে থাইল্যান্ড৷ আল জাজিরা জানাচ্ছে, ২০০৪ সাল থেকে এরকমই হামলায় বারে বারে রক্তাক্ত হয়েছে থাইল্যান্ড৷ অন্তত ৭০০০ জনের মৃত্যু হয়েছে এইরকম নাশকতায়৷