নয়াদিল্লিঃ বিশ্ব সাইকেল দিবসে সামনে এল আরও এক দুসংবাদ। গাজিয়াবাদের সাহিবাবাদ এলাকার সাইকেল তৈরি করার কারখানা বন্ধ করল অ্যাটল্যাস সাইকেল। পাশপাশি প্রায় এক হাজার জন কর্মীকে আপাতত ছুটি দেওয়া হয়েছে কিছুদিনের জন্য। মূলত বিশ্বজুড়ে চলা অর্থনৈতিক সংকটের কারণের জেরেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

সাইকেল প্রস্তুত করার কাঁচামাল কিনতে যথেষ্ট অসুবিধার মধ্যে পড়তে হচ্ছিল ওই সংস্থাকে। যার জেরে প্রভাব পরছিল সাইকেল প্রস্তুতিতেও। বুধবার সন্ধেবেলা এই মর্মে একটি নোটিশ দেওয়া হয় কারখানার মেন গেটে। কর্মীরা অফিসে পৌঁছে ওই নোটিশ দেখে অবাক হন। ইতিমধ্যে তারা ওই পদক্ষেপের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ শুরু করেছেন। অনেকেই জানিয়েছেন সংস্থার উৎপাদনের হার যথেষ্ট ভাল ছিল।

পাশপাশি এই অনির্দিষ্ট কালের জন্য ছুটি দেওয়ার আগে অন্ততপক্ষে একবার তাদের জানানো উচিত ছিল। সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে ওই কারখানাতে জুনের প্রথম সপ্তাহ থেকে ধীরে ধীরে শুরু হয়েছিল কাজ। কিন্তু অর্থনৈতিক সমস্যা এবং বেশ কিছু কারণের জন্যই তাদের তরফে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

ওই কারখানার শ্রমিক ইউনিয়নের এক নেতা জানিয়েছেন প্রায় এক হাজারের কাছাকাছি শ্রমিক সেখানে কাজ করে। তাই এই সিদ্ধান্তের ফলে প্রভাব পড়বে তাদের পরিবারের উপরে। পাশপাশি সংস্থার তরফে তাদের কাছে কিছু জানানো হয়নি। ইতিমধ্যে তারা প্রতিবাদ শুরু করেছেন বলেও জানানো হয়েছে।

বিগত বেশ কয়েক বছর ধরে ওই সাইকেল কোম্পানি অর্থনৈতিক সমস্যার মধ্যে ছিল। যার জেরে মধ্য প্রদেশ এবং হরিয়ানার কারখানা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। আর লোক ডাউনের কারণে হওয়া সমস্যার কারণে বন্ধ করে দেওয়া হল এই সংস্থাও।

প্রশ্ন অনেক: দ্বিতীয় পর্ব