কলকাতা২৪x৭: মারগাঁও’য়ের ফতোরদা স্টেডিয়ামে বৃহস্পতিবার আইএসএলের তৃতীয় ম্যাচ খেলতে নামছে এটিকে-মোহনবাগান। প্রতিপক্ষ ওডিশা এফসি। ডার্বি সহ প্রথম দু’ম্যাচ থেকে যেখানে পুরো ৬ পয়েন্ট তুলে নিয়ে দারুণ শুরু করেছে আন্তোনিও হাবাসের এটিকে-মোহনবাগান, সেখানে স্টুয়ার্ট বাক্সটারের ওডিশা এফসি’র প্রথম দু’ম্যাচ থেকে সংগ্রহ মাত্র এক পয়েন্ট। সবমিলিয়ে ধারে-ভারে বেশ খানিকটা এগিয়ে থেকেই তৃতীয় ম্যাচে মাঠে নামবে সবুজ-মেরুন ব্রিগেড।

তবে ওডিশা এফসি’কে সমীহ না করলে যে সমূহ বিপদ, সেটা ভালো করে জানেন এটিকে-মোহনবাগানের স্প্যানিশ কোচ। কারণ প্রথম ম্যাচে হারলেও গত ম্যাচে বেঙ্গালুরু এফসি’র বিরুদ্ধে জোড়া গোলে পিছিয়ে থেকেও ম্যাচে সমতা ফিরিয়েছে তারা। সৌজন্যে লুইস মৌরিসিও মাচাদো। সবুজ-মেরুন শিবিরে যদি রয় কৃষ্ণা থাকেন তবে ওডিশা শিবিরে পালটা অবশ্যই সাম্বার দেশের এই স্ট্রাইকার। তাছাড়া কৃষ্ণা, মনবীর কিংবা উইলিয়ামসদের জন্য চিন্তার কারণ হতে পারেন ওডিশা রক্ষণের স্তম্ভ স্টিভেন টেলর।

প্রিমিয়র লিগ খেলা এই প্রাক্তন ফুটবলারের ঝুলিতে রয়েছে নিউক্যাসেলের জার্সি গায়ে দু’শোটিরও বেশি ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা। যদিও প্রথম দু’ম্যাচে তিন গোল হজম করা ওডিশা রক্ষণকে সেই অর্থে মজবুত এখনও মনে হয়নি। অর্থাৎ, র‍য় কৃষ্ণারা বিপক্ষ রক্ষণের ফাঁকফোকর দেখে নিয়ে হোমওয়ার্ক সেরেই যে নামবেন মাঠে, সেকথা বলাই বাহুল্য। তবে আত্মতুষ্টিতে ভুগতে রাজি নন হাবাস।

ওডিশা ম্যাচের আগেরদিন এটিকে-মোহনবাগান কোচ জানিয়েছেন, ‘প্রথম দু’ম্যাচ জয়ের পর আমরা একইরকমভাবে জয়ের ধারা বজায় রাখতে চাই। দলের সকল ফুটবলার অত্যন্ত পেশাদার। প্রথম দু’টো ম্যাচ আমাদের কাছে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ছিল। ফাইনাল অবধি আমাদের কাছে বাকি ম্যাচগুলি জেতাও সমানভাবে গুরুত্বপূর্ণ। প্রথম ম্যাচগুলোতে আমরা নিজেদের পারফরম্যান্সে খুশি, কিন্তু আমরা জয়ের অভ্যেস বজায় রাখতে চাই।’

গত ম্যাচের একাদশ থেকে বড়সড় কোনও পরিবর্তনের রাস্তায় হাঁটবেন না হাবাস। অপরিবর্তিত একাদশ রেখেই শুরু করার সম্ভাবনাই প্রবল। একনজরে দেখে নেওয়া যাক দু’দলের সম্ভাব্য একাদশ-

এটিকে-মোহনবাগান সম্ভাব্য একাদশ: অরিন্দম ভট্টাচার্য, তিরি, সন্দেশ ঝিঙ্গান, প্রীতম কোটাল, কার্ল ম্যাকহিউ, জাভি হার্নান্দেজ, জয়েশ রানে, শুভাশিস বোস, প্রবীর দাস, ডেভিড উইলিয়ামস, রয় কৃষ্ণা।

ওডিশা এফসি সম্ভাব্য একাদশ: কমলজিত সিং, শুভম সারাঙ্গি, স্টিভেন টেলর, জ্যাকব ট্র্যাট, হেন্ডরি আন্তোনায়, গৌরব বোরা, কোল আলেকজান্ডার, নন্দ কুমার, মার্সেলিনহো, দিয়েগো মৌরিসিও, ম্যানুয়েল ওনয়ু।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।