কলকাতা: দীর্ঘ জল্পনার অবসান ঘটিয়ে বলা ভালো জল্পনায় শিলমোহর দিয়ে এটিকে-মোহনবাগানের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হলেন সন্দেশ ঝিঙ্গান। পাঁচ বছরের চুক্তিতে জাতীয় দলের সেরা স্টপারের সঙ্গে চুক্তি করে নিল সবুজ-মেরুন। ফলে এটিকে-মোহনবাগানের শক্তি যে আরও ক্ষুরধার হল সেকথা বলার অপেক্ষা রাখে না।

জাতীয় দলের এই সেন্টার-ব্যাকের সঙ্গে চুক্তি বেশ কয়েকদিন আগেই কার্যত পাকা হয়ে গিয়েছিল আইএসএল চ্যাম্পিয়নদের। শেষমুহূর্তে চুক্তির খুঁটিনাটি বিষয়গুলো খতিয়ে দেখার জন্য দিনকয়েকের সময় চেয়েছিলেন ‘অর্জুন’ সন্দেশ। তাই এটিকে-মোহনবাগানে তাঁর যোগদান ছিল সময়ের অপেক্ষা। সেইমতো শনিবার এটিকে-মোহনবাগানের চুক্তিপত্রে সন্দেশ সই করে দিয়েছেন বলে খবর। সেইসঙ্গে টুইটার হ্যান্ডেলে একটি গ্রাফিক ভিডিও পোস্ট করেছেন সন্দেশ।

সেখানে তিনি অনুরাগীদের জন্য বিকেল ৩টে’র সময় বিষয়টি নিয়ে অফিসিয়াল ঘোষণা করবেন বলে জানিয়েছেন। উল্লেখ্য, চলতি মরশুমে প্রাথমিকভাবে বিদেশের মাটিতে খেলার ইচ্ছে থাকলেও এটিকে-মোহনবাগানের ঈর্ষনীয় অফারও শুরু থেকে ছিল সন্দেশের কাছে। স্বাভাবিকভাবেই বিদেশের ক্লাবগুলোর পাশাপাশি মোহনবাগানের অফার পেয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা খুব সহজ ছিল না এই ডিফেন্ডারের পক্ষে। অবশেষে সবদিক পর্যালোচনা করে দেশের মাটিতে আইএসএলেই থেকে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিলেন সন্দেশ।

সন্দেশকে দলে নেওয়ার ব্যাপারে বিগত বছরগুলিতেও আগ্রহ দেখিয়েছিল মোহনবাগান। কিন্তু দেশের সেরা লিগ ছেড়ে কখনোই সবুজ-মেরুন জার্সি গায়ে চাপাতে রাজি হননি সন্দেশ। অবশেষে এটিকে’র সঙ্গে সংযুক্ত হয়ে আইএসএলে পা রেখে সন্দেশকে দলে নেওয়ার লক্ষ্যপূরণ করল মোহনবাগান। জানা গিয়েছে, বিদেশি ক্লাবের ভালো অফার পেলে প্রয়োজনে তিনি চুক্তি ভেঙে বেরোতে পারবেন কীনা এবিষয়ে জিজ্ঞাস্য ছিল সন্দেশের। চুক্তির বিভিন্ন শর্তাবলি খতিয়ে দেখে দু’পক্ষ সম্মতিতে পৌঁছনোর পরেই চুক্তিপত্রে সই করেছেন কেরালা ব্লাস্টার্সের প্রাক্তনী।

সন্দেশের যোগদানে দলের ডিফেন্স তো শক্তিশালী হলোই পাশাপাশি এটিকে-মোহনবাগান কোচ অ্যান্তোনিও হাবাসের রক্ষণে যে আরও বিকল্প তৈরি হল সেটা বলার অপেক্ষা রাখে না। প্রীতম কোটাল, তিরির সঙ্গে হাবাসের দলে থ্রি-ম্যান ব্যাকলাইনে অন্তর্ভুক্ত হবেন সন্দেশ। এমনটাই মনে করা হচ্ছে।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।