কাবুল: ফের রক্তাক্ত কাবুল৷ কান্দাহারে পুলিশ হেডকোয়ার্টারে তালিবানি হামলায় প্রাণ গেল ১২ জনের৷ আহতের সংখ্যা প্রায় ৮০৷ বুধবার কান্দাহারের পুলিশ হেড কোয়ার্টারের বাইরে গাড়িবোমা বিস্ফোরণ হয়৷ বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমের রিপোর্টে পুলিশ আধিকারিকদের বক্তব্য তুলে ধরে বলা হয়, ওই স্থানে দুটি বিস্ফোরণ হয়৷

যার ফলে হেডকোয়ার্টারের একটি গেট গুঁড়িয়ে যায়৷ পুলিশ কমিশনার তদীন খান জানান, হামলাকারীরা পুলিশের কাউন্টার নারকোচিক্স উইং-কে নিশানা করে৷

কমিশনার বলেন, শুধু বিস্ফোরণই নয়, আশেপাশের এলাকাতেও ওই হামলাকারীরা এলোপাথাড়ি গুলি ছুঁড়তে থাকে৷ তবে তাদের কড়া জবাব দেয় নিরাপত্তা রক্ষীরাও৷ এরইমধ্যে পুলিশ ঘটনাস্থল এবং আশেপাশের এলাকা ঘিরে ফেলে৷

পড়ুন: বাড়ছে উত্তেজনা, পারস্য উপসাগরে যাচ্ছে ব্রিটিশদের তৃতীয় যুদ্ধজাহাজ

আবার অন্য একটি সংবাদ সংস্থা জানাচ্ছে, প্রথম বিস্ফোরণের পর পর পর তিনটি বিস্ফোরণ হয়৷ নিহতদের মধ্যে সাধারণ মানুষের পাশাপাশি পুলিশও রয়েছে বলে জানা যাচ্ছে৷

এর কিছুদিন আগেই, গত ১২ জুলাই আফগানিস্তানে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণে প্রাণ যায় ৫ জনের৷ শুক্রবার পূর্ব আফগানিস্তানে একটি বিয়েবাড়ির অনুষ্ঠানে এই ঘটনা ঘটে৷ জানা যায়, ঘটনাস্থলটি পাক সীমান্তের কাছেই৷ নানগারহার গভর্ণরের মুখপাত্র আত্তাউল্লাহ খোগইয়ানি এক সংবাদ মাধ্যমের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে জানান, শুক্রবার সকাল ৮টা নাগাদ পাচিরাগামে এই বিস্ফোরণ হয়৷ ৫ জনের মৃত্যু হয়, আহতের সংখ্যা ৪০-এরও বেশি৷

পড়ুন: হোটেলে ঢুকে পড়ল জঙ্গিরা, আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ আর গুলিতে নিহত ২৬

পাচিরাগামের ডিস্ট্রিক্ট গভর্ণর হজরত খান খাসকর জানান, মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৪ হয়েছে৷ এবং আহতের সংখ্যা ১৪৷ তবে তিনি এও জানিয়েছিলেন, সংখ্যার হেরফের হতে পারে৷ নানগারহারের একটি হাসপাতালের পক্ষ থেকে জাহির আদিল নামে এক ব্যক্তি জানান, ২ টি মৃতদেহ এবং ১১ জন আহতকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়৷