স্টাফ রিপোর্টার, বারাকপুর: এটিএম কার্ড ক্লোন করে টাকা জালিয়াতি। উত্তর চব্বিশ পরগণা জেলার বেলঘরিয়া থেকে গ্রেফতার করা হল এটিএম জালিয়াতি চক্রের আন্তর্জাতিক চক্রের মাথাদের। বুধবার দুপুরে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে চার বিদেশি প্রতারককে গ্রেফতার করে বেলঘরিয়া থানার পুলিশ। ধৃতদের গ্রেফতার করে বুধবারই বারাকপুর কোর্টে পাঠায় পুলিশ। ধৃতদের মধ্যে দুজন তুরস্কের নাগরিক এবং বাকি দুজন বাংলাদেশের নাগরিক বলে জানতে পেরেছে বেলঘরিয়া থানার পুলিশ।

জানা গিয়েছে, বাইরের দেশ থেকে ভারতে এসে কলকাতার বেলঘরিয়া অঞ্চলের একটি ফ্লাট ভাড়া নিয়ে থাকত ধৃত ওই চার বিদেশি নাগরিক। বেলঘরিয়ার ওই ফ্লাটে বসেই তারা প্রচুর পরিমাণে অর্থনৈতিক জালিয়াতির কারবার চালাত। ধৃতদের কাছ থেকে পুলিশ প্রচুর হিসেব বহির্ভুত ডলার, এটিএম কার্ড, বিভিন্ন ব্যাংক এর চেক উদ্ধার করেছে। আর কি কি গোপন ষড়যন্ত্র এর ব্লু প্রিন্ট তারা তৈরী করেছিল তা খতিয়ে দেখছে বেলঘরিয়া থানার পুলিশ। ধৃতদের এদিন বারাকপুর আদালতে পেশ করা হলেও তদন্তের জন্য তাদের নিজেদের হেফাজতে নিতে চাইছে পুলিশ । ধৃত চার বিদেশী নাগরিকদের সঙ্গে আরও কে কে এই চক্রে জড়িত আছে তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

সূত্রের খবর, স্থানীয় বাসিন্দাদের কাছ থেকে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে পুলিশ ওই বিদেশী নাগরিকদের ফ্ল্যাটে হানা দেয়। পুলিশ সূত্রে আরও জানা গিয়েছে, গত ১৪ নভেম্বর স্থানীয় এল নাইন বাস স্ট্যান্ড সংলগ্ন আবাসনে ফ্ল্যাট ভাড়া নেয় চার বিদেশী প্রতারক। এদের মধ্যে দুই জন তুর্কির নাগরিক ও দুই জন বাংলাদেশি নাগরিক রয়েছে। ধৃত বিদেশিদের আচরন এলাকার বাসিন্দাদের কাছে সন্দেহ জনক মনে হওয়ায় তারা ওই বিদেশী নাগরিকদের বিষয়টি স্থানীয় বেলঘরিয়া থানায় জানায়। স্থানীয় বাসিন্দাদের কাছে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে মঙ্গলবার রাতে বেলঘরিয়ার ওই ফ্লাটে হানা দেয় পুলিশ সেখান থেকেই ওই চারজনকে গ্রেফতার করা হয়।

এছাড়াও ধৃতরা ত্রিপুরা তেও আর্থিক প্রতারনা চালাচ্ছিল বলে ত্রিপুরা পুলিশের কাছে তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছিল। এরপরই পুলিশ ওই বিদেশী নাগরিকদের গতিবিধি সম্পর্কে খোঁজ খবর শুরু করে। দৈনিক ১২০০ টাকা হিসেবে বেলঘরিয়া বিটি রোড সংলগ্ন একটি আবাসনের ফ্ল্যাট ভাড়া নেয় চার বিদেশী নাগরিক । পুলিশ তাদের ফ্ল্যাটে হানা দিলে তাদের প্রতারনা চক্র সম্পর্কে জানতে পারে। ওই অভিযুক্ত বিদেশি নাগরিকদের কাছ থেকে প্রচুর পরিমাণে হিসেব বহির্ভুত ডলার, এটিএম কার্ড, বিভিন্ন ব্যাংক এর চেক পাওয়া গিয়েছে।

শহরতলিতে বাড়ি ভাড়া নিয়ে অর্থনৈতিক জালিয়াতির পাশাপাশি, আর কি কি গোপন ষড়যন্ত্র এর ব্লু প্রিন্ট তারা তৈরী করেছিল তা খতিয়ে দেখছে বেলঘরিয়া থানার পুলিশ। মঙ্গলবার রাতে গ্রেফতারের পর, বুধবার অভিযুক্তদের বারাকপুরআদালতে পেশ করে তাদের নিজেদের হেফাজতে নিতে চাইছে পুলিশ। ধৃত চার বিদেশী নাগরিকদের সঙ্গে আরও কেউ এই চক্রে জড়িত আছে কি না তা খতিয়ে দেখতে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।