স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: কাঁথি লোকসভা কেন্দ্রের খেজুরির কুলথা বাজারের কাছে শুধু রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষের গাড়ি ভাঙচূর করাই হয়নি, তিনজন বিজেপি কার্যকর্তাকে ঘটনাস্থল খেকে অপহরণ করে নিয়ে যাওয়া হয়েছে৷ অভিযোগ জানিয়েছে বিজেপি৷ বিজেপির অভিযোগ তৃণমূলের স্থানীয় পার্টি অফিসে ওই তিন কার্যকর্তাকে আটকে রাখা হয়েছে৷ এই অভিযোগ করেছেন স্বয়ং অসমের মন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা৷ দিলীপ ঘোষের সঙ্গে জনসভায় তিনিও ছিলেন৷ ঘটনা নিজের চোখেই পর্যবেক্ষণ করেছেন অসমের এই মন্ত্রী৷ পরে তিনি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ট্যুইটারে ট্যাগ করে বিষয়টি জানিয়েছেন৷

প্রসঙ্গত, মেদিনীপুরে বিজেপির প্রার্থী দিলীপ ঘোষের গাড়িতেই হামলা হয়েছে। খেজুরিতে এই হামলা হয়। হামলার সময় ওই কনভয়ে ছিল অসমের মন্ত্রী হেমন্ত বিশ্বশর্মার গাড়িও। ওই কনভয়ে দুটি গাড়ি সম্পূর্ণ ভেঙে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ বিজেপির।

আরও পড়ুন: দিলীপ ঘোষের গাড়িতে হামলা

ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়েছে এলাকায়। ট্যুইটারে হিমন্ত জানিয়েছেন, সিআরপিএফ তাঁদের ওই জায়গা থেকে দূরে সরিয়ে নিয়ে যায়৷ কিন্তু বিজেপি কর্মীদের অপহরণ করে নিয়ে যাওয়া হয়েছে৷ দুষ্কৃতিরা ২০টি মোটরবাইক ভাঙচূর করেন৷ পরে বিজেপি মিডিয়া সেলের পক্ষ থেকে জানানো হয় ২৭টি মোটর বাইক ভাঙচূর করা হয়েছে৷ মঙ্গলবার রাত ৮টা নাগাদ ঘটনাটি ঘটে৷হিমন্ত বলেছেন, তৃণমূলের গুন্ডারা রাস্তা অবরোধ করেন৷ রাজ্যের পুলিশ রাস্তার ধারে দাঁড়িয়ে ছিল৷ কিছুই করছিল না৷ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজের ক্ষমতার এই ভাবে ব্যবহার করছেন দেখে অবাক হলাম৷ মমতার লোকেরা গণতন্ত্রকে আস্তাকুঁড়ে ছুঁড়ে ছেলে দিয়েছে৷ এইটাই নতুন ভারত? আমরা এই বারতের স্বপ্ন দেখি? যদিও ঘটনার পর কাঁথির সাংসদ শিশির অধিকারির বক্তব্য, বিজেপি পায়ে পা দিয়ে ঝগড়া করতে এসেছিল৷ তাই এই ঘটনা ঘটেছে৷

প্রসঙ্গত উল্লেখযোগ্য, শেষ পঞ্চায়েত নির্বাচনে বিজেপি পশ্চিম মেদিনীপুরে এবং জঙ্গলমহলে ভালো ফলাফল করেছে। তাঁর ফলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের চিন্তা বেড়েছে। এদিকে বিজেপির দৃঢ় বিশ্বাস জঙ্গলমহলের সবকটি আসন গেরুয়া শিবিরেই আসবে। আর সেই আশঙ্কা থেকেই দিলীপ ঘোষের গাড়িতে এমন হামলা বলে অভিযোগ রাজ্য বিজেপি নেতৃত্বে৷ রাজ্য বিজেপির এক নেতার বক্তব্য, ওরা (তৃণমূল কংগ্রেস) এই সব করার সুযোগ খুঁজছিল৷ কিঠু না কিছু করে ঝামেলা বাধাতেই হত৷ যদিও দিলীপ ঘোষের গাড়িতে আক্রমণের ঘটনা মোটেই নতুন নয়। এর আগেই মেদিনীপুর তো বটেই, সল্টলেকে দিলীপ ঘোষের গাড়ির কাঁচ ভাঙা হয়। এবার আবারও ফের একবার হামলার মুখে বিজেপি সভাপতি। ঘটনাস্থল এবার খেজুরি।