প্রতীকী ছবি

দিসপুর: করোনা পরস্থিতির মধ্যেও সামনে এল এক নৃশংস ঘটনা। অসমের বিশ্বনাথ জেলাতে দুই আদিবাসি নাবালিকাকে ধর্ষণ করে হুমকি দেওয়ার অপরাধে ৫ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করল স্থানীয় পুলিশ। ওই দুই নাবালিকাকে চিকিৎসার জন্য স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে স্থানীয় পুলিশ। এই মুহূর্তে অসমের করোনা ও বন্যা পরিস্থিতি যথেষ্ট উদ্বেগজনক। তার মধ্যে এই ঘটনা ঘটায় ক্ষুদ্ধ সকলে।

পুলিশের তরফে জানা গিয়েছে অভিযুক্তদের মধ্যে একজনের নাম প্রণবজ্যোতি পটগিরি। তিনি পেশাগত ভাবে একজন সাংবাদিক। তিনি এবং তার কয়েকজন বন্ধু মিলে ওই নাবালিকাদের ধর্ষণ করেন। অভিযুক্ত ব্যক্তি ওই পুরো ঘটনাটি রেকর্ড করে রাখেন। পরবর্তীকালে অভিযুক্তরা ওই দুই নাবালিকাকে এই বিষয়টি নিয়ে রীতিমত হুমকি দেন বলেও জানা গিয়েছে।

শনিবার ওই দুই নাবালিকা নিজের পরিবারের কাছে বিস্তারিত ভাবে সব জানাতে পরিবারের লোকেরাই থানাতে গিয়ে অভিযোগ জানান। রবিবার পুলিশি তল্লাশিতে ওই পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়।

অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে পকসো আইনে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। এছাড়া পরিবারের তরফ থেকে করা অভিযোগের ভিত্তিতে বিষয়টি নিয়ে যথেষ্ট সক্রিয় ভূমিকা নিয়েছে পুলিশ।

পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে ঘটনাটি নিয়ে বিস্তারিত তদন্ত চলছে। কিন্তু ফের নাবালিকা ধর্ষণের ঘটনা সামনে আসাতে রীতিমতো প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। ইতিমধ্যে একাধিক বিদ্বজ্জন নারী স্বাধীনতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ