অশোকনগর: পুরসভার বিরুদ্ধে ৩ কোটি টাকা লুঠের অভিযোগে উত্তর ২৪ পরগনার অশোকনগর পুরসভা ঘেরাও করে বিক্ষোভ বামেদের। অভিযোগ, পুরবোর্ড থেকে তিন কোটি টাকা লুঠ করেছে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল। এই অভিযোগে অশোকনগর পুরসভা ঘেরাও করে বিক্ষোভ করে বামেরা। এমনকী পুরসভার গেটে তালা ঝুলিয়ে চলে বিক্ষোভ।

অভিযোগ উঠেছিল বেশ কিছুদিন আগেই। এবার সেই অভিযোগ নিয়েই পুরভবন অভিযান করে বামেরা। অশোকনগর পুরসভা ঘেরাও করে চলে তুমুল বিক্ষোভ। বামেদের অভিযোগ, পুরবোর্ড থেকে টাকা লুঠ হয়েছে। দুর্নীতির আঁতুড়ঘর হয়েছে অশোকনগর পুরসভা। সব কিছু জেনেও পুর কর্তৃপক্ষ উদাসীন বলেও তোপ দেগেছেন বাম নেতারা। ৩ কোটি টাকা লুঠের অভিযোগ তোলা হয়েছে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূলের বিরুদ্ধে।

দুর্নীতির অভিযোগ নিয়ে পুরভাবন অভিয়ান করে বামেরা। বামেদের বিক্ষোভ কর্মসূচিতে যোগ দেন বহু আদিবাসী সম্প্রদায়ের লোকজন। তির-ধনুক নিয়েই অশোকনগর পুরভবনে এসে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে আদিবাসীরা। অবিলম্বে টাকা লুঠে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি তোলেন বাম নেতারা। বামেদের এই বিক্ষোভের জেরে শিকেয় ওঠে পুরসভার দৈনন্দিন কাজকর্ম। গোটা পুরভবনেই উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।

এদিকে, বামেদের তোলা দুর্নীতির অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছে বর্তমান পুরবোর্ড৷ পুরসভার চেয়ারম্যান প্রমোদ দাস জানিযেছেন, বামেরা যে অভিযোগ নিযে বিক্ষোভ করছে সেই ঘটনাটি ২০১২ সালের। সেই সময় দায়িত্বে বর্তমান পুরবোর্ড ছিল না। পরে ২০১৫ সালে বর্তমান পুরবোর্ড তৈরি হয়।

পরের বছরই টাকা লুঠ নিয়ে মামলা দায়ের করা হয়। সেই মামলা এখনও চলছে বলে জানিয়েছেন পুরপ্রধান। পুরসভা ভোটের আগে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবেই বামেরা পুরভবন ঘেরাও করে বিক্ষোভ করছে বলে অভিযোগ অশোকনগরের পুরপ্রধান প্রমোদ দাসের।