নয়াদিল্লি: রাহুল গান্ধী অনড়৷ সভাপতির পদ থেকে পদত্যাগ করার সিদ্ধান্তে নড়চড় যে হবে না তা বুঝিয়ে দিয়েছেন অনেক আগেই৷ দলের শীর্ষ নেতৃত্ব যেন তাঁর বিকল্প খুঁজতে শুরু করেন, এই কথাও জানিয়ে দিয়েছিলেন তিনি৷ প্রাথমিকভাবে রাজি না হলেও, পরবর্তীতে দলের শীর্ষ নেতারা অনেকবারই এই ইস্যুতে আলোচনায় বসেছেন৷

এবার দলের নতুন সূত্রের খবর অনুযায়ী রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট হতে পারেন পরবর্তী কংগ্রেস সভাপতি৷ জি নিউজের প্রতিবেদন অনুযায়ী কংগ্রেসের দিল্লি ইউনিট জানাচ্ছে পরবর্তী কংগ্রেস সভাপতি হিসেবে নাম উঠে এসেছে অশোক গেহলটের৷ কিন্তু প্রশ্ন উঠেছে কংগ্রেস সভাপতির পদ সামলে রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রীত্ব কীভাবে সামলাবেন গেহলট৷ তবে এর জবাবে বেশ কিছু নাম তুলে এনেছেন কংগ্রেস নেতারা৷

আরও পড়ুন : কিশোরীর চিকিৎসার জন্য ৩০ লক্ষ টাকা পাঠিয়ে দিলেন মোদী

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজে দলের নেত্রী, ওডিশার মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়েক বিজু জনতা দলের প্রধান, উত্তরপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদব বা মায়াবতী, দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল, তামিল নাড়ুর প্রয়াত প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী জে জয়ললিতা- এঁরা প্রত্যকেই নিজের নিজের দলের নেতা হিসেবে রয়েছেন বা ছিলেন৷

সূত্র বলছে অশোক গেহলটের পক্ষে সায় রয়েছে গান্ধী পরিবারেরও৷ মাস খানেক ধরেই কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীর পদত্যাগ ঘিরে নানা গল্প ঘোরাঘুরি করছে রাজধানীর অলিন্দে৷ কিছু দিন আগেই জানা গিয়েছিল পদত্যাগ করছেন না রাগা৷ তাঁর মানভঞ্জন করে কংগ্রেসের শীর্ষ নেতারা জানিয়ে দিয়েছিলেন পদে বহাল থাকছেন তিনি৷

এই তথ্য প্রকাশের ২৪ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই শীলা দীক্ষিতের বক্তব্য সামনে আসে৷ রাহুলের পদত্যাগ আটকাতে তিনি নাকি ধরণায় বসবেন৷ সব মিলিয়ে জটিল অঙ্ক চলছে গান্ধী বাসভবনে৷ কংগ্রেস সূত্র জানায় পদত্যাগ করতে অনড় রাহুল গান্ধী৷ কারণ তিনি চান লোকসভা নির্বাচনের যাবতীয় ব্যর্থতার দায় কাঁধে নিয়ে সরে যেতে৷

আরও পড়ুন : ‘আজাদ’ কাশ্মীরে নেই বিন্দুমাত্র স্বাধীনতা, দাবি স্থানীয় সমাজকর্মীর

এর আগে, টাইমস অফ ইণ্ডিয়া জানিয়েছিল যদি সত্যিই কংগ্রেস সভাপতির পদ ছেড়ে দেন রাহুল গান্ধী, তাহলে সেই পদে সাময়িক ভাবে কে বসবেন, তার ভাবনা চিন্তা শুরু হয়েছে৷ প্রতিবেদন অনুযায়ী ইতিমধ্যেই নাম ঠিক করে ফেলেছে কংগ্রেস হাইকম্যাণ্ড৷ অন্তর্বর্তীকালীন কংগ্রেস সভাপতি হিসেবে বর্ষীয়ান নেতা একে অ্যান্টনির নাম উঠে এসেছে৷ যতদিন না নতুন স্থায়ী সভাপতি পাচ্ছে দল, ততদিন পর্যন্ত অ্যান্টনিই দলের যাবতীয় দায়িত্ব সামলাবেন বলে জানা গিয়েছিল৷

উল্লেখ্য, লোকসভা নির্বাচনে হারের দায় নিয়ে সরে যেতে চাইছেন রাহুল৷ অন্ধ্রপ্রদেশ, অরুণাচল প্রদেশ, দিল্লি, গুজরাট, হরিয়ানা, হিমাচল প্রদেশ, জম্মু কাশ্মীর, মণিপুর, মিজোরাম, ওড়িশা, রাজস্থান, সিকিম, ত্রিপুরা, উত্তরাখণ্ড, আন্দামান নিকোবর, চণ্ডীগড়, দাদর নগর হাভেলি, দমন দিউ ও লাক্ষাদ্বীপে খাতা খুলতে পারেনি কংগ্রেস৷