জয়পুর: পাঠ্য বইয়েও প্রবেশ করল রাজনীতির ঘোরপ্যাঁচ। স্বাধীনতা সংগ্রামী বিনায়ক দামোদর সাভারকারের নামের আগে ‘বীর’ উপাধি মুছল রাজস্তান সরকার। ইতিহাস বইয়ের পাতা থেকে তাঁর নামের আগে লেখা ‘বীর’ উপাধি সরিয়ে দিল অশোক গেহলট পরিচালিত রাজস্তান সরকার।

সম্প্রতি রাজ্য বোর্ডের তরফে অনুমোদন করা স্কুলের পাঠ্য বইগুলিতেও বিভিন্নভাবে বদল এনেছে গেহলট পরিচালিত কংগেসের রাজস্তান সরকার। যদিও এনডিএ সরকারের আমলেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল পাঠ্য পুস্তকে বদল আনা হবে। কিন্ত তার আগেই সরকার বদল হওয়ায় পরিকল্পপনা বাস্তবায়িত হয় নি।

গেহলট সরকার আসার পর পুরনো সরকারের সেই পরিকল্পনা হাতে নেয়। ঐতিহাসিক ঘটনা থেকে শুরু করে বিভিন্ন ব্যক্তিত্বের জীবনী সংক্রান্ত যে সমস্ত পাঠ্যগুলি রয়েছে সেগুলিতে বদল আনা হবে বলে জানায় তারা।

রাজস্থান বোর্ড অফ সেকেন্ডারি এডুকেশন (RBSE) অনুমোদিত নতুন বইগুলি বাজারে বিতরণ করবে রাজস্থান স্টেট টেক্সট বুক বোর্ড (RSTB)। এই বদলেই বদলে গিয়েছে স্বাধীনতা সংগ্রামী তথা দক্ষিণ পন্থী ‘হিন্দুত্ব’ আদর্শের প্রবক্তা বিনায়ক দামোদর সাভারকারের নামের আগে ‘বীর’ তকমা।

দ্বাদশ শ্রেনির পাঠ্য পুস্তকে ছিল সাভারকারের নামে একটি স্বাধীনতা আন্দোলনের অধ্যায়। বদল ঘটেছে সেটিতে। পাঠ্যটিতে বর্ণনা করা হয়েছে ব্রিটিশ সরকার তার উপর জেলে কিভাবে অকথ্য অত্যাচার করেছে। পরে ব্রিটিশদের কাছে মাপ চেয়ে তিনটি আবেদনপত্র পাঠানোর বিষয়টিও বর্ণনা করা হয়।

সম্প্রতি রাজস্থান সরকার পাঠ্য পুস্তকে বদলের বিষয়টি জন্য একটি কমিটিও গঠন করেছে। যা রাজ্য এডুকেশন বোর্ডের দস্তুর।

অন্যান্য বদলগুলির মধ্যে উল্লেখযোগ্য দশম শ্রেনির সমাজ বিজ্ঞান বইয়ের একটি অধ্যায়ে হলদিঘাটিতে মহারাণা প্রতাপ এবং আকবরের সঙ্গে যুদ্ধের বিষয়টিতেও বদল আনা হয়েছে। দ্বাদশ শ্রেনির রাষ্ট্র বিজ্ঞান বইয়ের একটি অধ্যায়েও বদল আনা হয়েছে। “জিহাদ” এর একটি বিষয়েও বদল আনা হয়েছে।

রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী গোবিন্দ দোস্তারা সম্প্রতি ঘোষণা করেছেন সঠিক নিয়ম নীতি মেনেই সাভারকারের জীবনীর পাঠ্যে বদল আনা হবে।