নয়াদিল্লি : স্যুটকেস থেকে মিলল ৭ বছরের এক শিশুর দেহ৷ ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর পশ্চিম দিল্লির স্বরূপ নগরে৷ প্রায় একমাস ধরে এই শিশুর দেহ খুঁজছিল পুলিশ৷

উত্তর পশ্চিম পুলিশের ডেপুটি কমিশনার আসলাম খান জানিয়েছেন, ওই ছেলেটির নাম আশিস৷ ৭ জানুয়ারি সে নিরুদ্দেশ হয়৷ মঙ্গলবার সকালে নতুপুরা গ্রামের কাছে একটি সুটকেসের মধ্যে পাওয়া গিয়েছে৷ আশিসের বাড়িতে ভাড়া থাকত অবদেশ শাক্য৷ তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ৷

 

আরও পড়ুন : উপত্যকায় অব্যাহত গুলির লড়াই, শহিদ ছয় জওয়ান

পুলিশ সূত্রে আরও জানা গিয়েছে, অপরাধের মোটিভ এখনও খুঁজে পাওয়া যায়নি৷ আশিসের বাবা ও মাকে ইতিমধ্যেই জিজ্ঞাসা করা হয়েছে৷ জানা গিয়েছে, ওই ভাড়াটের সঙ্গে খুব ঘনিষ্ঠ ছিল আশিস৷ তাকে “কাকা” বলে ডাকত৷ আশিসের বাবা ও মা যখন ছেলেকে শাক্যর কাছে পাঠানো বন্ধ করে, তা ভালো লাগেনি শাক্যর৷

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, আশিসের দেহ সুটকেসের মধ্যে পাওয়া গিয়েছে৷ দেহের অবস্থা খুব একটা ভালো ছিল না৷ নিখোঁজ হওয়ার কিছুদিনের মধ্যেই তাকে খুন করা হয়৷ আপাতত তার দেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে৷ স্বরূপ নগর পুলিশ স্টেশনে একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে৷

আশিসের পরিবারের সঙ্গে প্রায় ৮ বছর ধরে থাকতেন শাক্য৷ তিনি ভাড়াটে ছিলন৷ ৫ বছর আগে তিনি অন্য কোথাও চলে যান৷ UPSC পার্লামেন্টারি এক্সামিনেশনের জন্য ৩ বার পরীক্ষা দিয়েছিল সে৷ আশিসের বাবার থেকে মুক্তিপণ দাবি করার তালে সে ছিল বলে পুলিশ মনে করছে৷