নিউ ইয়র্ক:  “অ্যাঞ্জেলিনা মোটেই ব্র্যাডের উপযুক্ত নয়! ও খুব জটিল স্বভাবের মেয়ে! ওকে বিয়ে করার ফল ব্র্যাডকে ভুগতেই হবে”! বিস্ফোরক মন্তব্য ব্র্যাড প্রাক্তনী জেনিফার অ্যানিসটনের।

ব্র্যাডকে ডিভোর্সের কাগজ হাতে ধরিয়েছেন অ্যাঞ্জেলিনা। নায়িকার দাবি, স্বামীর অত্যাচার তাঁর পক্ষে মেনে নেওয়া আর সম্ভব ছিল না! দীর্ঘ দিন ধরে শারীরিক, মানসিক অনেক কিছু বয়ে চলেছিলেন তিনি! সন্তানদের সঙ্গেও ব্র্যাডের নিষ্ঠুর আচরণ মেনে নিতে পারছিলেন না আর! এবার তাই সে সবের হাত থেকে নিষ্কৃতি চান! পাশাপাশি, সন্তানদেরও রাখতে চান নিজের কাছেই।

ঘর ভাঙল ব্র্যাড-অ্যাঞ্জেলিনার। সারা পৃথিবীতে শোরগোল তো পড়বেই। সেই জোয়ারে নিজের ক্ষোভ উগরে দিলেন ব্যাড প্রাক্তণী জেনিফার। প্রকাশ্যে বললেন,’এটা ওর কৃতকর্মের ফল” । তা কি করেছেন স্বামী! ২০০৪ সালে ‘মিস্টার অ্যান্ড মিসেস স্মিথ’ ছবির শুটিং করতে গিয়ে অ্যাঞ্জেলিনা জোলির প্রেমে পড়েন ব্র্যাড পিট। এবং, পরিণামে স্ত্রী জেনিফার অ্যানিসটনকে বিবাহবিচ্ছেদের কাগজ ধরান তিনি। সেই কথাই এবার উঠে এসেছে অ্যানিসটনের মন্তব্যে। তবে ইন্টারনেট এখন উত্তাল হয়েছে জেনিফার অ্যানিসটনকে নিয়ে। সংবাদমাধ্যমের সৌজন্যে দ্রুত ছড়িয়ে পড়েছে ব্র্যাঞ্জেলিনার সংসার নিয়ে অ্যানিসটনের এমন মন্তব্য। তবে এখানেই শেষ নয়। অ্যানিসটনের এক ঘনিষ্ঠ বন্ধু আরও কয়েকটি বিস্ফোরক কথা জানিয়েছেন সংবাদমাধ্যমকে। বলেছেন, “জেনিফার সব সময়েই বলত ব্র্যাডের সঙ্গে কিছু একটা খারাপ হবে! এবার সেই কথা মিলে গেল”। সব মিলিয়ে ‘ব্রাঞ্জোলিনা’ ফ্যান খুশি না হলেও, জেনিফার কিন্তু এখবরে শান্তি পেয়েছেন।

1