নয়াদিল্লি: চরম ধাক্কার মুখে পড়ল কেজরিওয়ালের বিনামূল্যে মহিলাদের যাতায়াতের পরিকল্পনা। চলতি সপ্তাহতেই বাস এবং মেট্রোতে মহিলাদের জন্য বিনা ভাড়ায় যাতায়াতের কথা ঘোষণা করেছিলেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালে।

কিন্তু পূর্বের মতই কেন্দ্রের তোপের মুখে পড়ল তার এই পরিকল্পনা। কেন্দ্রীয় নগরোন্নয়ন মন্ত্রী হরদীপ সিং পুরি জানিয়েছেন তার কাছে এই সংক্রান্ত কোনও প্রস্তাবই আসেনি।

মহিলাদের নিরাপত্তা রক্ষার্থেই নাকি এই পরিকল্পনা নেওয়া হবে জানিয়েছিলেন কেজরি। চলতি সপ্তাহতেই ঘোষণা করেছিলেন রাজধানীতে বাস এবং মেট্রোতে মহিলাদের জন্য বিনা ভাড়ায় যাতায়াতের পরিষেবা দেবে সরকার।

তার সেই পরিকল্পনায় জল ঢেলে কেন্দ্র সরকার বৃহস্পতিবার সাফ জানিয়ে দেয় এই প্রস্তাব তারা গ্রহণ তো দুর, তাঁদের কাছে এমন কোনও পরিকল্পনার কথা প্রস্তাবও করা হয় নি। শুধু এইবার নয়, বরাবরই কেন্দ্রের বিড়ম্বনার মুখে পড়েছে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীর চিন্তাধারাগুলি।

কেন্দ্রীয় নগরোন্নয়ন মন্ত্রী হরদীপ সিং পুরি এদিন জানিয়েছেন, “দিল্লির মহিলাদের জন্য বিনামূল্যে যাতায়াতের ব্যবস্থা করার মত কোনও প্রস্তাবই তার কাছে আসে নি।”

রাজ্য সরকার কখনই কেন্দ্র সরকারের সাহায্যপ্রার্থী কোনও প্রকল্প কেন্দ্র সরকারের মতামত না জানিয়ে জনসমক্ষে ঘোষণা করতে পারে না। এই বিষয়ে তিনি কেজরিকে উদ্দেশ্য করে বলেছেন, “আপনি কখনই নিজে ঘোষণা করে তারপর কোনও পরিকল্পনা কেন্দ্র সরকারকে জানাতে পারেন না।” তিনি আরও বলেছেন, “বিজেপি সব সময় ভারতের মহিলাদের পাশে আছে। যদি সম্ভব হয় আমরা মহিলাদের জন্য এই পরিকল্পনার বাস্তবায়ন ঘটাব। কিন্তু এইভাবে কোনও পরিকল্পনার বাস্তবায়ন ঘটান যায় না।”

“সুপ্রিম কোর্ট রাজধানীর জন্য ১১ হাজার বাসের সংকুলান করেছে। আর বর্তমানে কটা বাস চলে! আমি সংসদে জানিয়েছি যেন বয়স্ক এবং পড়ুয়াদের মেট্রো পরিষেবা দিতে পারি এবং দিল্লি মেট্রো কর্পোরেশনও এই বিষয়ক প্রযুক্তিতে কাজ শুরু করে দিয়েছে।” বলেন পুরি।

কেজরির অবশ্য পাল্টা যুক্তি দেখিয়ে বলেছেন, তিন মাসের মধ্যেই এই প্রক্রিয়া চালু হবে। দিল্লি সরকারের তরফ থেকে এর জন্য ৭০০ কোটি টাকা ব্যয় করা হবে।