ঢাকা: কোনও অবস্থাতেই ভারতীয় লেখিকা তথা বুকার জয়ী আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন অরুন্ধতি রায়ের বক্তৃতা বাতিল থেকে সরে আসা হবে না৷ এমনই অনড় মনোভাব নিল ছবিমেলা কর্তৃপক্ষ৷ এই সংস্থার উদ্যোগে ঢাকায় একটি আলোচনায় অংশ নিতে এসেছেন বিতর্কিত লেখিকা৷ তাঁর বক্তৃতা আটকে দিয়ে নোটিশ জারি করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশ৷

গড অফ স্মল থিংসের লেখিকা অরুন্ধতি রায়ের বক্তৃতা আটকে দেওয়ার সংবাদ ছড়িয়ে পড়তেই বাংলাদেশের বুদ্ধিজীবী মহল আলোড়িত৷ অভিযোগ উঠছে, মুক্ত চিন্তায় আঘাত দিচ্ছে সরকার৷ এদিকে ছবিমেলা কর্তৃপক্ষ তাদের ফেসবুকে জানিয়েছে, অরুন্ধতি রায়ের বক্তৃতার স্থান পরিবর্তন করা হয়েছে৷ মঙ্গলবারই পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচি অনুসারে তিনি বক্তব্য রাখবেন৷

প্রতিষ্ঠানটির তরফে আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন আলোকচিত্রী শহিদুল আলম জানিয়েছেন, ঢাকা মহানগর পুলিশ সোমবার গভীর রাতে জানিয়েছে যে, গত ১৬ ফেব্রুয়ারি আমাদের আবেদনের প্রেক্ষিতে কৃষিবিদ ইন্সটিটিউট অডিটোরিয়ামে অরুন্ধতি রায়ের বক্তব্য রাখার জন্য যে অনুমতি দেয়া হয়েছিল অনিবার্য কারণে তা প্রত্যাহার করা হয়েছে।

এর পরেই আলাদা স্থানে ভারতীয় লেখিকার অনুষ্ঠান করতে নেমে পড়ে ছবিমেলা কর্তৃপক্ষ৷ তারা জানিয়েছে, মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টায় ধানমন্ডির মাইডাস সেন্টারে আসবেন অরুন্ধতি৷ ছবিমেলা প্রতিষ্ঠানের তরফে ঢাকায় চলছে তাদেরই উদ্যোগে দক্ষিণ এশিয়ার অন্যতম বড় ফটোগ্রাফি অনুষ্ঠান৷ সেখানেই আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে অরুন্ধতি রায়কে৷ জানা গিয়েছে ‘অ্যাটমোস্ট এভরিথিং’ শিরোনামের অনুষ্ঠানে আলোকচিত্রী শহিদুল আলমের সঙ্গে আলাপচারিতায় অংশ নেবেন তিনি।

গত জাতীয় নির্বাচনের আগে সড়ক দুর্ঘটনার প্রতিবাদে বাংলাদেশ জুড়ে ছড়িয়ে পড়ে নিরাপদ সড়ক আন্দোলন৷ অচল হয়ে গিয়েছিল জনজীবন৷ সেই সময় সোশ্যাল মিডিয়ায় উত্তেজনা ছড়ানোর অভিযোগে আলোকচিত্রী শহিদুল আলম সহ কয়েকজনকে তিনি শেখ হাসিনার সরকারের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছিলেন। তাঁকে জেলে নিয়ে যাওয়া হয়। তার জেরে অরুন্ধতি সহ একাধিক আন্তর্জাতিক স্তরের বুদ্ধিজীবী সরব হন। শহিদুলের মুক্তি চেয়ে অরুন্ধতী খোলা চিঠি লিখেছিলেন। তাতে সায় জানিয়েছিলেন একাধিক আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন বুদ্ধিজীবী৷

উদ্যোক্তারা জানিয়েছেন, ছবিমেলা প্রদর্শনীতে ২১টি দেশের ৪৪ জন শিল্পীর ৩৩টি আলোকচিত্র প্রদর্শিত হচ্ছে। এছাড়া বিশ্বজুড়ে থাকা বিশিষ্ট আলোকচিত্র অনুশীলনকারীদের নিয়ে বিভিন্ন বিষয় বস্তুর ওপর ভিত্তি করে রয়েছে আটটি কর্মশালা। এই উৎসব চলবে ৯ মার্চ পর্যন্ত।