নয়াদিল্লি: এবার তবে কি ২০০০টাকার নোট বাতিল করতে চলেছে সরকার৷ রাজ্যসভায় বিরোধীদের এমন প্রশ্নের কোনও জবাব দেননি খোদ অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি৷ যার জেরে আশংকা বেড়েছে নতুন ২০০০টাকার নোটও বাতিল হতে চলেছে বলে৷

বাজারে আসছে ১০০টাকার নতুন নোট

বিশেষত নতুন ২০০টাকার নোট ছাপান জন্য ২০০০টাকার নোট ছাপা বন্ধ করার খবর ছড়াতে এই আশংকা দানা বেধেছে অনেকের মনে৷ তার উপর অর্থমন্ত্রীর নিরাবতা তাতে আর একটা মাত্রা যোগ করল৷ যদিও বিশেষজ্ঞদের ধারণা , আপাতত ২০০০ টাকার নোট বাতিল না করে ব্যাংক নোটের সার্কুলেশন ঠিক করার জন্যই ধীরে ধীরে নতুন দু’শো টাকার নোট পৌছে দিতে চাইছে এবার রিজার্ভ ব্যাংক৷ পরের মাসেই নতুন ২০০ টাকার নোট বাজারে আসতে পারে বলে আশা করা হচ্ছে৷

নতুন নোটের নকশার অনুমোদন ঠিক কবে হয়েছিল?

রাজ্যসভায় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি হাজির থেকেই এ বিষয়ে মুখ খোলেননি৷ বরং রাজ্যসভার ডেপুটি চেয়ারম্যান পি জে কুরিয়ান বিরোধীদের প্রশ্ন ঘিরে কোলাহল ওঠায় বিষয়টি এড়াতে তিনি জানান,এটি রিজার্ভ ব্যাংকের সিদ্ধান্ত ৷ যদিও তা শুনে কেউ কেউ খোঁচা দেয়, প্রথমবার বিমুদ্রাকরণের সময় রিজার্ভ ব্যাংক নিষেধ করলেও তা সরকার মানেনি৷ সেক্ষেত্রে দ্বিতীয়বারও যদিও ২০০০ টাকার নোটের ক্ষেত্রে বিমুদ্রাকরণ হয় , সেটাও যে কেন্দ্রের সিদ্ধান্তেই হবে তা বলার অপেক্ষা রাখে না ৷ তাছাড়া এমন সিদ্ধান্ত কেন্দ্রের অমতে আদৌ রিজার্ভ ব্যাংকের নেওয়ার ক্ষমতা আছে কি না – তা জানতে চাইলে অবশ্য কেন্দ্রের কাছ থেকে কোনও জবাব মেলেনি৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।