নয়াদিল্লি: অত্যন্ত সংকটজনক অরুণ জেটলির শারীরিক অবস্থা। এইমস কর্তৃপক্ষের তরফে জানা গিয়েছে প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীকে বর্তমানে রাখা হয়েছে এক্সট্রাকর্পোরিয়াল মেমব্রেন অক্সিজেনেশন বিভাগে (ইসিএমও)। রাতে হাসপাতালে তাঁকে দেখতে আসেন কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং। সূত্রের খবর, কিছুক্ষণের মধ্যে এইমস পৌঁছতে পারেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

প্রাক্তন অর্থমন্ত্রীর উদ্বেগজনক শারীরিক অবস্থার কথা জানতে পেরে বিকেলেই এইমস পৌঁছে যান দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল, উপমুখ্যমন্ত্রী মনীষ সিসোদিয়া এবং কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রামবিলাস পাসোয়ান। এরপর একে একে অরুণ জেটলিকে দেখতে আসেন জম্মু-কাশ্মীরের রাজ্যপাল সত্য পাল মালিক, কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধন, কংগ্রেস নেতা অভিষেক সিংভি, জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া প্রমুখ।

বহুজন সমাজবাদী পার্টি নেত্রী মায়াবতীও জেটলির সংকটজনক শারীরিক অবস্থার কথা জানতে পেরে ছুটে যান এইমসে। পরে টুইটারে তিনি লেখেন, ‘এইমসে গিয়ে বর্ষীয়ান বিজেপি নেতা তথা প্রাক্তন প্রতিরক্ষা ও অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলির স্বাস্থ্যের খবরাখবর নিয়ে এলাম। পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে তাদের আশ্বস্ত করার পাশাপাশি তাঁর দ্রুত আরোগ্য কামনা করলাম।’

উল্লেখ্য, গত কয়েকদিন ধরে ফুসফুসের সমস্যা আরও তীব্র হওয়ায় জেটলির শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটতে থাকে। রবিবার সেই সমস্যা আরও বাড়লে তাঁকে ইসিএমও বিভাগে স্থানান্তরিত করা হয়। গত ৯ অগাস্ট শ্বাসপ্রশ্বাসের সমস্যা নিয়ে এইমসে ভর্তি হন বর্ষীয়ান এই বিজেপি নেতা। তবে গত মে মাস থেকেই শারীরিক নানা সমস্যার কারণে এইমসে চিকিৎসাধীন অরুণ জেটলি। শারীরিক অসুস্থতার কারণে গত লোকসভা নির্বাচন থেকেও নিজেকে সরিয়ে নিয়েছিলেন