লন্ডন: চেলসি ছাড়ার কথা ঘোষণা করেছিলেন আগেই। আর এবার প্রত্যাশামতোই আর্সেনালের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হলেন ব্রাজিলিয়ান উইঙ্গার উইলিয়ান। শুক্রবার তিন বছরের চুক্তিতে তাঁকে দলে নেওয়ার কথা ঘোষণা করল লন্ডনের ক্লাবটি।

চেলসির সঙ্গে চুক্তি শেষ হয়ে যাওয়ায় আসন্ন মরশুমের জন্য ব্লুজ’দের সঙ্গে নতুন করে কোনও চুক্তি করেননি উইলিয়ান। অর্থাৎ, ফ্রি ট্রান্সফারেই আর্সেনালে যোগ দিলেন বছর বত্রিশের ব্রাজিলিয়ান উইঙ্গার। বুকায়ো সাকা, জো উইলক, গ্যাব্রিয়েল মার্তিনেই, রেইস নেলসনের সঙ্গে সংযুক্ত হয়ে উইলিয়ান আসন্ন মরশুমে গানার্সদের মাঝমাঠে যে অনেকটাই শক্তি বৃদ্ধি করবেন, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। উইলিয়ানের সংযুক্তির ব্যাপারে আর্সেনাল ম্যানেজার মিকেল আর্তেতা জানিয়েছেন, ‘আমি বিশ্বাস করি ও এমন একজন ফুটবলার যে পার্থক্য গড়ে দিতে পারে।’

আর্তেতা আরও বলেন, ‘গত কয়েকমাস ধরে আমরা ওর পারফরম্যান্স নজরে রাখছিলাম। অ্যাটাকিং মিডফিল্ডার এবং উইঙ্গার পজিশনে আমরা শক্তি বৃদ্ধি করতে চাইছিলাম আমরা। আর সে কারণেই উইলিয়ানকে আমরা দলে অন্তর্ভুক্ত করেছি।’ গানার্সদের প্রাক্তন ফুটবলার তথা কোচ আরও বলেন, ‘উইলিয়ানের সঙ্গে আমি কথা বলে মুগ্ধ। ও এই ক্লাবে আসতে কতোটা মুখিয়ে ছিল তা ওর কথাতেই স্পষ্ট।’

উল্লেখ্য, গত রবিবার তাঁর জন্মদিনেই চেলসির সঙ্গে দীর্ঘ ৭ বছরের সম্পর্ক ছেদ করার কথা ঘোষণা করেছিলেন ব্রাজিলিয়ান মিডিও। মাথা উঁচু করেই স্ট্যামফোর্ড ব্রিজ ছাড়ছেন তিনি, এক আবেগঘন বার্তায় অনুরাগীদের জানিয়েছেন ব্লুজ’দের হয়ে জোড়া প্রিমিয়র লিগ, একটি এফএ কাপ, একটি লিগ কাপ, একটি ইউরোপা লিগ জয়ী দলের সদস্য উইলিয়ান। টুইট বার্তায় চেলসি অনুরাগীদের তিনি বলেন, ‘ঠিকানা বদল করার সময় এসেছে। আমি আমার চেলসি সতীর্থদের ভীষণভাবে মিস করব। মিস করব ক্লাবের প্রত্যেক স্টাফকে যারা এতবছর আমায় সন্তানের মতো আগলে রেখেছিলেন। মিস করব আমার ফ্যানেদের।’

উইলিয়ান আরও লেখেন, ‘চেলসির জার্সিতে আমি সবসময় নিজের সেরাটা দিয়েছি। তাই এখান থেকে যা পেয়েছি তা নিয়ে মাথা উঁচু করেই ক্লাব ছাড়ব। তোমাদের সবাইকে আমি কৃতজ্ঞতা জানাই। ঈশ্বর তোমাদের মঙ্গল করুক।’ টটেনহ্যামের বড় প্রস্তাব থাকলেও রাশিয়ার ক্লাব থেকে ২০১৩ স্ট্যামফোর্ড ব্রিজে যোগদান করেছিলেন উইলিয়ান। এরপর গত সাত মরশুমে ব্লুজ জার্সিতে সবধরনের প্রতিযোগীতা মিলিয়ে ৩৩৯ ম্যাচে ৬৩টি গোল করেছেন এই ব্রাজিলিয়ান।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও