অভিযুক্ত শাহরুখ।

নয়াদিল্লি: প্রায় ২৪ ঘণ্টা বাদে দিল্লির বন্দুকধারী যুবককে গ্রেফতার করল পুলিশ। সোমবার রাতভর চলে সংঘর্ষ। অবশেষে মঙ্গলবার সকালে তাকে গ্রেফতার করেছে দিল্লি পুলিশ।

মোবাইলে তোলা ভিডিও এই ব্যক্তিকেই বন্দুক হাতে এগিয়ে আসতে দেখা গিয়েছিল। লাল টি শার্ট পরা এই ব্যক্তির হাতেই ছিল বন্দুক।

রাত পেরোলেও এখনও সংঘর্ষের ঘটনা জারি রাজধানীতে। সোমবার দুপুরে যে ঘটনার সূত্রপাত। মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত সেই ঘটনায় সাত জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে। সাতজনের মধ্যে একজন পুলিশ কর্মী ও বাকিরা সাধারণ নাগরিক।

এছাড়াও এই ঘটনায় অন্তত ১০০জন আহত হয়েছেন বলে খবর। এদের মধ্যে ৪৮ জন পুলিশ কর্মী। এমনকি মঙ্গলবার সকালে পথচারীদের লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে বলে দাবি পুলিশের।

একদিকে ভারত সফরে এসেছেন ট্রাম্প দম্পতি। আর অন্যদিকে একের পর এক মৃত্যুর দেখছে রাজধানী দিল্লি। সোমবার বিকেল থেকেই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায়।

এদিন দিল্লির পরিস্থিতির যেসব ছবি প্রকাশ্যে আসতে শুরু করেছে তাতে রাজধানীকে যুদ্ধক্ষেত্র ছাড়া আর কিছুই মনে হচ্ছে না। ধ্বংস হয়েছে একের পর এক গাড়ি বাড়ি দোকানপাট সব কিছুই। এমনকি পেট্রোল পাম্পে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। এদিন ভজনপুর আর একটি পেট্রোল পাম্পে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়।

ইটের আঘাতে মৃত্যু হয়েছে রতনলাল নামে এক পুলিশের হেড কনস্টেবলের। বিক্ষোভকারীদের ছোড়া ইটের আঘাতে গুরুতর চোট পান রতনলাল। তখনই তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। হাসপাতালে নিয়ে গেলে তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়।