শ্রীনগর: কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে ফের উত্তপ্ত হয়ে উঠল কাশ্মীর৷ অনন্তনাগের পর এবার পুলওয়ামা৷ সোমবার সেনা কনভয়ের উপর আচমকা হামলা সন্ত্রাসবাদীদের৷ বিস্ফোরণের সাহায্যে কনভয়ের একটি গাড়ি উড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করা হয়৷ এখনও অবধি কোনও হতাহতের খবর নেই৷ তবে এলাকা জুড়ে শুধুই গুলির শব্দ৷ পুলিশ জানিয়েছে, এনকাউন্টার চলছে৷

পুলওয়ামাতে হামলার আশঙ্কা প্রকাশ করে সম্প্রতি ভারতকে সতর্ক করে পাকিস্তান৷ তবে সেই সতর্কবার্তায় অবন্তিপোরার কথা বলা হয়েছিল৷ গত মাসে এনকাউন্টারে অবন্তীপোরাতে খতম হয় কুখ্যাত জঙ্গি জাকির মুসা৷ তার মৃত্যুর বদলা নিতেই ভারতে হামলা চালাতে তৎপর হয়ে উঠেছে জঙ্গিরা৷ উল্লেখ্য, ফেব্রুয়ারি মাসে এই পুলওয়ামাতেই আত্মঘাতী জঙ্গি হামলায় ৪০ জনের বেশি জওয়ান শহিদ হন৷ তারপরেই ভারত-পাক সম্পর্ক তলানিতে গিয়ে ঠেকে৷

ফেব্রুয়ারি মাসের উত্তেজনার পরেও কাশ্মীরে অশান্তি থামেনি৷ সোমবার সকালেই সেনা-জঙ্গির গুলির লড়াইয়ে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয় জম্মু-কাশ্মীরের অনন্তনাগ৷ আর্মি মেজর এই এনকাউন্টার পর্বে শহিদ হন এবং এক জঙ্গিকে খতম করা হয়েছে বলেও জানা গিয়েছে৷ পাশাপাশি, ১৯ রাষ্ট্রীয় রাইফেলসের ২ সেনা এবং এক সেনা আধিকারিক আহত হন এবং জম্মু-কাশ্মীরের ডিজিপি দিলবাগ সিং জানান, এখনও এনকাউন্টার চলছে৷ এই পর্ব শেষ হলে এ সম্পর্কে আরও তথ্য দেওয়া সম্ভবপর হবে বলে তিনি জানান৷

এর আগে গত ১২ জুন অনন্তনাগে সিআরপিএফ-জঙ্গির গুলির লড়াইয়ে ৫ জওয়ান শহিদ হন৷ শহিদ জওয়ানরা হলেন, এএসআই রমেশ কুমার(ঝঝ্ঝর, হরিয়ানা). এএসআই নিরোদ শর্মা (নলবাড়ি, অসম), সিটি সত্যেন্দ্র কুমার (মুজফ্ফরনগর, উত্তরপ্রদেশ), সিটি মহেশ কুমার কুশওয়াহা(গাজিপুর, উত্তপ্রদেশ) এবং সিটি সন্দীপ যাদব (দেওয়াস, মধ্যপ্রদেশ)৷