নয়াদিল্লি: নিউ জেনারেশন অ্যাসল্ট রাইফেলের জন্য আবারও বিশ্বব্যাপী খোঁজ শুরু করল ভারত৷ জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার তাদের এই প্রজেক্টকে নয়া ভাবে শুরু করেছে কেন্দ্র৷ দশবছর আগেও একই ভাবে শুরু হয়েছিল অ্যাসল্ট রাইফেলের বিশ্বব্যাপী খোঁজ৷ কিন্তু কিছু প্রযুক্তিগত ও আর্থিক কেলেঙ্কারির জন্য বন্ধ হয়ে গিয়েছিল সেই প্রজেক্ট৷ সেনা সূত্রে খবর, প্রাথমিক পর্যায়ে ৬৫ হাজারের ও পরবর্তী পর্যায়ে আরও এক লক্ষ বারো হাজার অ্যাসল্ট রাইফেল দরকার ভারতীয় সেনার৷

সেনার পক্ষ থেকে জানান হয়েছে, ৭.৬২ মিমি X ৫১ মিমি অ্যাসল্ট রাইফেল দরকার তাদের৷ রাইফেলের সবচেয়ে কম রেঞ্জ হবে ৫০০ মিটার, তাতে থাকবে মাল্টি অপশন টেলিস্কোপিক সাইট৷ এছাড়া থাকছে লেজার টার্গেট পয়েন্টার, হোলো গ্রাফিকসহ বহু চিহ্ন৷ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক সূত্রে খবর, ২০১৭ সালের এপ্রিল মাসে এই রাইফেল তৈরির জন্য টেন্ডার ডাকতে পারে কেন্দ্র৷ প্রধানত, মার্কিন সামরিক অস্ত্র নির্মাণ সংস্থা কোল্ট, ইতালির বেরেট্টা, ইউরোপের সিগ সাউয়ার ও ইজরায়েল ওয়েপন ইন্ড্রাস্ট্রিকে আমন্ত্রণ জানান হয়েছে এই টেন্ডার ডাকার অনুষ্ঠানে৷ দশ বছর আগের টেন্ডার ডাকার অনুষ্ঠানেও হাজির ছিলও এই সংস্থাগুলি৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.