জয়পুর: বলিউডের চোখে জল আনা ছবি নয়, এ একেবারে বাস্তব। মৃত্যুর খবর পাওয়ার সাত বছর পর বাড়িতে ফিরে এলেন এক সেনা জওয়ান। রাজস্থানের আলোয়ারের বাড়িতে তাই উৎসবের মেজাজ।

ধরমবীর যাদব নামে ওই জওয়ান ২০০৯ থেকে নিখোঁজ হয়ে যান। দেরাদুনে একটি গাড়ি দুর্ঘটনার পর থেকে তাঁর কোনও খোঁজ ছিল না। তাঁকে মৃত বলেই উল্লেখ করা হয়। এমনকি ২০১২ থেকে পেনশন পেতেও শুরু করে তার পরিবার। সেরকম একটি পথ দুর্ঘটনাতেই আবার পরিবারের সঙ্গে দেখা হয়ে গেল তার। দিন পাঁচ-ছয় আগে হরিদ্বারের রাস্তায় বাইক এসে ধাক্কা মারে ধরমবীরকে। আহত হন তিনি। আর তাতেই স্মৃতি ফিরে আসে তাঁর। বাইক আরোহী তাঁকে ক্ষতিপূরণ স্বরূপ ৫০০ টাকা দেন। সেই টাকা নিয়েই বাসে চাপেন তিনি। পৌঁছে যাব বাড়িতে।

কলিং বেল শুনে দরজা খুলে বিশ্বাস করতে পারেননি তাঁর বাবা। মনে হয় তিনি স্বপ্ন দেখছেন। বাড়িতে ঢোকার পর ভাষা হারিয়ে ফেলেন সবাই। সাত বছর আগে যে ছেলে মারা গেছে, সে ফিরে আসে কেমন করে? বিষয়টা বুঝতে বেশ খানিকটা সময় নেন পরিবারের লোকজন। তাঁর স্ত্রী ও দুই কন্যাসন্তান রয়েছে। ধরমবীর জানিয়েছেন, দেরাদুনের দুর্ঘটনার পর এলাকাবাসী তাঁকে উদ্ধার করে। এরপর আর তাঁর কিছু মনে নেই।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ