শ্রীনগর : সীমান্ত পেরিয়ে ভারতে আসার চেষ্টা বানচাল করল সেনা। তিন জঙ্গি সীমান্ত পেরিয়ে অনুপ্রবেশ ঘটানোর চেষ্টা করছিল বলে সেনা সূত্রে খবর। জম্মু কাশ্মীরের নৌসেরা সেক্টরের রাজৌরি জেলার ঘটনা। তিন জঙ্গিকেই নিকেশ করেছে ভারতীয় জওয়ানরা।

সেনা জানিয়েছে এই তিন জঙ্গি সীমান্ত পেরিয়ে দেশে ঢোকার চেষ্টা করতেই সেনার নজরে পড়ে যায়। সঙ্গে সঙ্গেই ওই তিন জঙ্গিকে খতম করা হয়। উল্লেখ্য গত ২৮শে মে থেকে রাজৌরি জুড়ে টহলদারি চালাচ্ছে সেনা। টহলদারি চালানোর সময়েই সীমান্তে অনুপ্রবেশের ঘটনা নজরে আসে।

সেনার এক শীর্ষ আধিকারিক জানান পুঞ্চ ও রাজৌরি জুড়ে তল্লাশির মাত্রা বাড়ানো হয়েছে। বিভিন্ন গ্রামে চলছে টহলদারি। অন্যদিকে পৃথক ভাবে তল্লাশি চালাচ্ছে বিএসএফ। পুলিশের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে জম্মু কাশ্মীরের সাম্বা সেক্টরের হীরানগর এলাকায় তল্লাশি চালানো হচ্ছে।

সংবাদ সংস্থা পিটিআই জানিয়েছে রবিবার রাত থেকেই তল্লাশির মাত্রা বাড়ানো হয়েছে। গোপন সূত্রে সেনার কাছে খবর আসে অনুপ্রবেশ ঘটতে পারে। সেই সূত্র ধরেই তল্লাশি চালায় সেনা। সাম্বা সেক্টরের নদী সংলগ্ন অঞ্চলগুলিতে নজরদারি চলছে। বিশেষত বাসান্তার, ইক নালা এলাকায় জোর দিচ্ছে সেনা, কারণ এই এলাকাগুলি হীরানগরের সঙ্গে যুক্ত।

এদিকে, ৩১শে মে রাতভর এলওসিতে লাগাতার হামলা চালিয়েছে পাকিস্তান। সারারাত ধরেই অবিরাম চলেছে মর্টার শেলিং। জম্মু কাশ্মীরের পুঞ্চ জেলায় এই হপাক হানায় আহত হয়েছেন ২৫ বছরের এক ভারতীয় যুবক। রবিবার এক অধিকর্তার তরফে একথা জানানো হয়েছে।

সেনার তরফে জানানো হয়েছে, শনিবার রাত ১১ টা নাগাদ মেন্ধর এবং বালাকোট সেক্টরে শেলিং শুরু করে পাক সেনা, রাতভর শেলিংয়ের পর রবিবার ভোর রাত ৪ টে ৩০ নাগাদ এই শেলিং বন্ধ হয়।

মহম্মদ ইয়াজির নামক ২৫ বছরের ওই যুবক বাড়ির কাছেই একটি মর্টার ফেটে স্পিলিন্টারের ঘায়ে আহত হন। রবিবার ভোর রাতে এই ঘটনা ঘটে।

সেনার তরফে জানানো হয়েছে, বর্ডার এলাকার কাছাকাছি প্রায় ছটি গ্রাম লক্ষ্য করে রাতভর গোলাগুলি চলেছে। যার জেরে দুটি বাড়ির আংশিক ক্ষতি হয়েছে। মেন্ধর সেক্টরে শেলিং-এর মাত্রা বেশি ছিল।

জানা গিয়েছে, ভারতীয় বাহিনীও এই পাক হামলার খোলা হাতে জবাব দিয়েছে। তবে পাকিস্তানের কতটা কি ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে, সে সম্পর্কে তাৎক্ষণিক ভাবে কিছু জানা যায়নি।

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প