মুম্বই: সাধারণের মধ্যে ভারতীয় সেনাকে রাখা অনুচিত বলেই মনে করেন রামনাথ কোভিন্দ৷ দেশের সুরক্ষায় দায়বদ্ধ ভারতীয় সেনারা আসলে ‘বিরল প্রজন্মের’বলে জানালেন রাষ্ট্রপতি৷ তাঁর ঘোষণা- দায়বদ্ধতা, দায়িত্বপালনের দেশের সেরা ভারতীয় সেনাই৷

মুম্বইয়ে ন্যাশনাল ডিফেন্স আকাডেমির পাসিং আউট প্যারাডে ভাষণ দেন রাষ্ট্রপতি৷ ভারতীয় সেনার ভূয়সী প্রশংসার পাশপাশি দেশের কাজে কতটা তৎপর তাঁরা সেই কথাও জানান৷ দেশের সুরক্ষায় তৈরি সশস্ত্র বাহিনী আসলে তরুণ প্রজন্মের আইকন বলে মনে করেন তিনি৷ প্রশংসা সেনাদের কাছে নতুন নয়, তবে সেনাদের দায়বদ্ধতা বা নিঃস্বার্থ দেশপ্রেমকে অন্যরকম ভাবেই ব্যখ্যা করেছেন কোভিন্দ, সশস্ত্র বাহিনী শুধু উচ্চপদস্থ সেনার নির্দেশই পালন করেন না, তাঁরা সেই নির্দেশের উত্তর দেন প্রাণের বাজি রেখে৷ ভারতীয় সেনা সবটাই খুব সহজ ভাবে করে ফেলতে পারেন৷ আর এখানেই সাধারণের থেকে তাঁরা আলাদা হয়ে ওঠেন বলে জানান রাষ্ট্রপতি৷

স্থল, জল, বায়ু – প্রত্যেক বিভাগের সেনা আসলে দেশের মেরুদণ্ড৷ তাঁরাই একতার দায়িত্ব নিজের কাঁধে বইছেন বলে জানান কোভিন্দ৷ আর সেই কারণেই রাস্তায় বা বাজারে সেনাদের দেখলেই সাধারণ মানুষ আবেগপ্রবণ হয়ে ওঠেন৷ কোভিন্দ জানান, সেই আবেগটাই সেনাদের প্রাপ্তি৷ ন্যাশনাল ডিফেন্স আকাডেমির মঞ্চে কোভিন্দের ভাষণ অনুষ্ঠানকে অন্য মাত্রায় নিয়ে যায়৷ সশস্ত্র বাহিনীর সমাপ্তি প্যারাড কোভিন্দের ভাষণে রঙিন হয়ে ওঠে৷