প্রতীতি ঘোষ, বারাকপুর: উত্তর ২৪ পরগনার বারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিংহের বাড়ি সংলগ্ন ফাঁকা জমিতে আচমকা তল্লাশি অভিযান পুলিশের। হঠাত করেই জগদ্দল থানার পুলিশ এবং বারাকপুর পুলিশ কমিশনারেটের বিশেষ তদন্তকারী দল হানা দেয় সেখানে। সাংসদ অর্জুন সিংয়ের বাড়ির কাছে থাকা তারই একটি ফাঁকা জমিতে মজুত রাখা আছে বোমা।

গোপন সূত্রে এই খবর পেয়ে শুক্রবার বিকেলে পুলিশ কমিশনারেটের এক বিশেষ দল জগদ্দল থানার পুলিশকে সঙ্গে নিয়ে ওই জমিতে তল্লাশি চালায়। তবে আগে থেকে এই তল্লাশি অভিযান চালানোর বিষয়ে কোন নোটিশ সিং পরিবারের সদস্যদের দেওয়া হয়নি বলে দাবি ভাটপাড়ার বিজেপি বিধায়ক অর্জুন পুত্র পবন সিংয়ের।

শুক্রবার বিকেলে অর্জুন সিংহের ফাঁকা জমিতে দীর্ঘক্ষণ তল্লাশি চালিয়েও অর্জুন বাবুর ওই জমি থেকে পুলিশ কিছু না পাওয়ায় অবশেষে বিধায়ক পবন সিংয়ের কাছে লিখিত ভাবে “নীল রিপোর্ট” দিয়ে যায় জগদ্দল থানার পুলিশ। তল্লাশির এই ঘটনা ঘটার সময় সাংসদ অর্জুন সিং বাড়িতে না থাকলেও এই তল্লাশির খবর পেয়ে ওই ফাঁকা জমিতে ঘটনাস্থলে পৌঁছে যান অর্জুন বাবুর ছেলে তথা বিজেপি বিধায়ক পবন সিং ও ভাটপাড়া পুরসভার চেয়ারম্যান সৌরভ সিংও। তবে এই ঘটনায় ক্ষুব্ধ সাংসদ পুত্র ভাটপাড়ার বিধায়ক পবন সিং। সম্পূর্ণ উদ্দেশ্য প্রণোদিত ভাবে পুলিশ তাদেরকে হয়রানি করছে বলে অভিযোগ করেন পবন সিং।

তিনি এদিন বলেন,” আমার বাবা যত দিন তৃণমূল কংগ্রেস দলে ছিলেন, ততদিন এই রকম কোন কিছু হয় নি । আর যেদিন থেকে আমার বাবা বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন, সেই দিন থেকেই নানা ভাবে আমাদেরকে চাপে ফেলা হচ্ছে। অতীতে কোনও দিন আমাদের সাথে এমন হয়রানি করা হয়নি। এটা সম্পূর্ণ ভাবে একটি রাজনৈতিক চক্রান্ত। পুলিশ রাজ্যের শাসক দলের কথা মত এই কাজ করছে।

তবে রোজ রোজ বাবার উপর ও আমাদের ওপর অকারণে পুলিশের এই ধরনের ব্যবহার ও কাজে আমরা খুবই বিরক্ত হয়ে গেছি। আজও পুলিশ বোমা রাখা আছে বলে কোন নোটিশ ছাড়াই অকারণে আমাদের ফাঁকা জমিতে তল্লাশি করে গেল। কিন্তু সেখান থেকে কিছুই তারা পাননি ।” লাগাতার বিভিন্ন ইস্যুতে এই ধরনের হেনস্থার বিরুদ্ধে প্রয়োজনে আইনি পথে যাওয়ার কথা তিনি চিন্তা করছেন বলে জানান বিজেপি বিধায়ক পবন সিং ।

পপ্রশ্ন অনেক: একাদশ পর্ব

লকডাউনে গৃহবন্দি শিশুরা। অভিভাবকদের জন্য টিপস দিচ্ছেন মনোরোগ বিশেষজ্ঞ।