স্টাফ রিপোর্টার, বারাকপুর: প্রচারে লড়াই৷ ইভিএমে লড়াই৷ শক্তি প্রদর্শনের লড়াই৷ লড়াইয়ের শক্তি যোগাতে তাই যুযুধান দুই শিবিরের প্রার্থীই হনুমানজীর শরণাপন্ন৷

বারাকপুরে তৃণমূল ও বিজেপির প্রেসটিজ ফাইট৷ লড়াই জোড়াফুলের দীনেশ ত্রিবেদীর সঙ্গে পদ্মফুলের অর্জুন সিংয়ের৷ প্রচার ঘিরে দুই শিবিরই জমজমাট৷ রয়েছে একে অন্যের বিরুদ্ধে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেওয়ার টানটান উত্তেজনা৷

এই পরিস্থিতিতে ভোটে জিততে ভরসা বজরংবলী৷ এদিন হালিশহরের হনুমানজীর মন্দিরে পুজো দেন তৃণমূলের দীনেশ ত্রিবেদী৷ সঙ্গে ছিলেন বীজপুরের তৃণমূল বিধায়ক শুভ্রাংশু রায়৷

আরও পড়ুন: বামেরা প্রার্থী না দেওয়ায় ‘অক্সিজেন’ পেলেন কংগ্রেসে’র ডালু বাবু

ভাটপাড়া পুরসভায় অর্জুন সিংয়ের পরাজয় প্রসঙ্গে দীনেশ ত্রিবেদী বলেন, “সত্যের জয় হয়েছে এবং অসত্যের পরাজয় হয়েছে। মানুষ শান্তি চায়, ওখানে শান্তি ফিরছে।’’ অর্জুন সিংয়ের কোনও কথার উত্তর দিতে চাননি তিনি। জানান তিনি প্রচারে মানুষের কথা বলবেন, উন্নয়নের কথা বলবেন।”

এদিকে ভোটের ময়দানে তৃণমূল ত্যাগী ভাটপাড়ার বিধায়ক অর্জুন সিং ভোট প্রচার করেন ব্যারাকপুর রেল স্টেশনের ঐতিহ্যপূর্ণ হনুমান মন্দিরে পুজো দিয়ে৷

সোমবারই ভাটপাড়া পুরসভা হাতছাড়া হয়েছে অর্জুন সিংয়ের৷ এই প্রসঙ্গে বারাকপুরের বিজেপি প্রার্থী বলেন, “৫টা কাউন্সিলরের ভোট পেয়ে যদি ভাবেন জিতে গেছেন, তবে উনি মূর্খের সর্গে বাস করছেন। এমন কাউন্সিলররা ভাটপাড়া পুরসভায় আস্থা ভোট দিয়েছে, যাদের সঙ্গে মানুষ নেই। লোকসভা ভোট হবে মানুষের ভোটে, আর মানুষ আমার সঙ্গে আছে। আগামী ২৩ মে সব প্রমাণ মিলবে।’’