কলকাতাঃ একুশের শহিদ দিবসের মঞ্চ থেকে বাংলা থেকে বিজেপিকে উৎখাতের ডাক দেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ মমতা বলেন, বিজেপিকে ভোট দেওয়ার অর্থ গোটা রাজ্যকে ভাটপাড়া করে দেওয়া৷ ভাটপাড়ার শান্তি নিয়ে ছিনিমিনি খেলছে বিজেপি এমনই চাঞ্চল্যকর অভিযোগ করেন মমতা। একদিকে যখন অশান্ত ভাটপাড়া নিয়ে বিজেপিকে তোপ দাগছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অন্যদিকে তখন পালটা দলনেত্রীকে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়লেন বারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং।

পড়ুন আরও- বিজেপিকে ভোট দিলে ভাটপাড়া হয় : মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

তাঁর দাবি, ভাটপাড়ায় নতুন করে নির্বাচন হোক। শুধু তাই নয়, সেই নির্বাচনে প্রার্থী হোন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর ভাটপাড়ায় প্রার্থী করব আমার ছেলেকে। উনি বুঝতে পারবেন, ভাটপাড়ার মানুষ কাকে চাইছেন। উনি এখানে গোহারা হারবেন। উল্লেখ্য, ভাটপাড়া বিধানসভা এখন বিজেপি দখলে। এই কেন্দ্র থেকে অর্জুন তাঁর ছেলে পবনকে প্রার্থী করেন মদন মিত্রের বিরুদ্ধে। বিপুল ভোটে জয় পান।

উল্লেখ্য, ২১ শে জুলাইয়ের মঞ্চ থেকে মমতা বলেন বিজেপিকে ভোট দেওয়ার অর্থ গোটা রাজ্যকে ভাটপাড়া করে দেওয়া৷ ভাটপাড়ার শান্তি নিয়ে ছিনিমিনি খেলছে বিজেপি এমনই অভিযোগ মমতার৷ তিনি বলেন তৃণমূল সরে যাওয়ার পরেই ভাটপাড়ার এই পরিস্থিতি৷ তৃণমূল ক্ষমতায় আসার পরে রাজ্যে শান্তি প্রতিষ্ঠা হয়৷ শিল্পী, গায়কদের সম্মান প্রতিষ্ঠা হয়৷ তাঁর এই পরিপ্রেক্ষিতেই পালটা অর্জুন সিং তাঁর দলনেত্রীকে এভাবেই চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিলেন।

অর্জুন আরও বলেন, ভাটপাড়ায় যেভাবে অশান্তি হচ্ছে এর পিছনে বিজেপি নেই। মূলে রয়েছে সরকারের একাংশ। তিনি বলেন, পুলিশের জন্যে ভাটপাড়ায় অশান্তি হচ্ছে। পুলিশ এখানে শাসক দলের দালালি করছে। নিরীহ মানুষদের ধরছে। আর অপরাধীদের ছেড়ে দিচ্ছে। আর সেই কারণে সাধারণ মানুষ প্রতিবাদ জানাচ্ছে। আর তা জানাতে গেলে পুলিশ ভয় দেখাচ্ছে বলে অভিযোগ অর্জুনের।