সৌপ্তিক বন্দ্যোপাধ্যায়, কলকাতা : বিলিয়ার্ডসকে দেশের ঘরের খেলা করতে নেমে পড়েছেন সৌরভ কোঠারি। মধ্যবিত্তের ঘরে বিলিয়ার্ড শুধু মাত্র শখের খেলা হয়েই থেকেছে। সেই ধারণাই এবার পরিবর্তন আনতে চাইছেন অর্জুন পুরস্কার প্রাপ্ত এবং বিশ্ব বিলিয়ার্ড মঞ্চে দ্বিতীয় স্থানে থাকা এই খেলোয়াড়। রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকেও হাত বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। কেন্দ্রের নেতা মন্ত্রিরা চাইলে এই খেলার উন্নতি সর্বত্র স্তরে সম্ভব বলে দাবি সৌরভের।

দেশের বেশির ভাগ মানুষের কাছে বিলিয়ার্ডস ‘রাজার খেলা’ বলে পরিচিত। এই ধারনারই পরিবর্তন চাইছেন সৌরভ কোঠারি। কিন্তু এই ধারনার পরিবর্তন কি সম্ভব? সৌরভ বলেন, “সবই সম্ভব, কিন্তু তার আগে আমাদের দেশের মন্ত্রী আমলাদের নরেচরে বসতে হবে। তবেই ভারতের বিলিয়ার্ডসে উন্নতি সম্ভব।” সৌরভ বলেন, “চিন, আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়ার স্পোর্টস চ্যানেলে বিলিয়ার্ডসকে দারুণ ভাবে দেখানো হয়। আমাদের দেশে এখনও সেটা হয়নি।” সেটা হলে তবেই না দেশের মানুষ জানবে, খেলাটাকে মন থেকে চাইবে বলে মনে করেন ‘অর্জুন’ সৌরভ। এই মুহূর্তে বিশ্ব বিলিয়ার্ডসে সৌরভের এখন দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন। তিনিই কি এই খেলার রোল মডেল হতে পারেন না? সৌরভের ব্যখ্যা, “আগে আমাদের দেশের মন্ত্রীদের পেন, খাতা নিয়ে বসে ভাবতে হবে এই খেলাটাকে তারা কোনও পর্যায়ে দেখতে চাইছেন।” তাঁরা যদি সঠিক দিকে এগোন তাহলে দেশে অনেক ছোট ছোট স্থান থেকে তাঁর থেকেও ভালো খেলোয়াড় উঠে আসা সম্ভব বলে দাবি করেন সৌরভ।

বাংলার তৃণমূল স্তরেও এই খেলার উন্নতি চাইছেন সৌরভ। তিনি বলেন এখন রাজ্য স্তরেও বিলিয়ার্ডসের উন্নতির জন্য টাকা দেওয়া হচ্ছে। শুধু আমাদের সঠিক পথে এগোতে হবে। মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসের কথা উল্লেখ করে সৌরভ বলেন, “ আমার সঙ্গে ওনার কথা হয়েছে। উনি বাংলার গ্রামের মানুষের কাছে বিলিয়ার্ডকে পৌঁছে দিতে বলেছেন।” কিন্তু প্রশ্ন থেকেই যায় কলকাতা বাদে রাজ্যের অন্যন্য জেলায় ফুটবল, ক্রিকেট যতটা জনপ্রিয় সেই ভাবে কি বিলিয়ার্ডসের মত খরচা সাপেক্ষ খেলাকে পৌঁছে দেওয়া সম্ভব? সৌরভের দাবি, “প্রথমত বিলিয়ার্ড খরচা সাপেক্ষ খেলা নয়। আসলে আমাদের দেশে এই খেলার পরিকাঠামো নেই। বিলিয়ার্ডস খেলতে গেলে আসতে হয় বড় ক্লাবে। সেটাই সবার পক্ষে সম্ভব হয় না। জেলা স্তরে যদি এই পরিকাঠামো সত্যিই দেওয়া হয় তাহলে খেলা জনপ্রিয় হতে বাধ্য। উঠে আসবে অনেক খেলোয়াড়ও।”

এই মুহূর্তে কলকাতায় শুরু হচ্ছে দ্বিতীয় বেঙ্গল বিলিয়ার্ডস প্রিমিয়ার লিগ। সেখানে খেলছেন সৌরভ সহ দেশের অন্যন্য রাজ্যের সফল বিলিয়ার্ডস খেলোয়াড়রা। ২০ জুন থেকে ২৫ জুন অবধি চলবে এই টুর্নামেন্ট। গত বছরের নয় দল নিয়ে শুরু হয়েছিল এই টুর্নামেন্ট। এই বছরের দলের সংখ্যা বেড়ে ১০ হয়েছে।

কলকাতায় বিলিয়ার্ডস ধীরে ধীরে ভালো জায়গা করে নিচ্ছে। শুধু রাজ্যের মত কেন্দ্র স্তরেও এই খেলার উন্নতির যথেষ্ট উদ্যোগ প্রয়োজন। তবেই হয়তো আরেকটা সৌরভ কোঠারি বা পঙ্কজ আদবানী পাবে দেশ।