কলকাতা : “এই ধরণের ছবি বাংলায় আগে কখনও হয়নি৷” দৃঢ় বিশ্বাস নিয়ে এই কথাটাই বললেন পরিচালক অরিন্দম শীল৷ তাঁর কাছে ছবিটা একেবারেই তাঁর বাকি ডিটেক্টিভ ছবির মতো নয়৷

পরিচালনার পথচলা শুরু হতে হতে আজ নিজের দশ নম্বর ছবি নিয়ে ময়দানে নেমে পড়েছেন অরিন্দম৷ আগামী ছবির নাম ‘খেলা যখন’৷ সাইকোলজিকাল থ্রিলার হল ছবির জনরাহ৷ যা আগে কখনও টলিউডে তাঁর মতো করে তৈরি হয়নি বলেই দাবি করেছেন পরিচালক৷

দু’দিন আগেই হয়েছে ছবির শুভ মহরৎ হয়ে গিয়েছে৷ মহরতে হাজির ছিলেন মিমি চক্রবর্তী, অনির্বান ভট্টাচার্য, তনুশ্রী চক্রবর্তী, সৌরভ দাস৷ এবং অরিন্দমের এই থ্রিলারের হাত ধরে টলিউডে ডেবিউ করার কথা ছিল সায়নি গুপ্ত৷

২০১৪ সালে ‘মারগারিটা উইথ আ স্ট্র’র মাধ্যমে বলিউডে পদার্পন করেছিলেন সায়নি৷ তারপর থেকেই খুব কম সময়ের মধ্যে তাবড় তাবড় পরিচালক, অভিনেতা, অভিনেত্রীদের সঙ্গে কাজ করে ফেলেছেন সায়নি৷

তবে সায়নির এবং অরিন্দমের ডেট না মেলায় সায়নির জায়গায় মিমিকে নেওয়া হয়েছে৷ ‘উর্মি’র চরিত্রে অভিনয় করছেন মিমি৷ কোমা থেকে সুস্থ হয়ে ফেরার পর নিজের অতীত মনে করার চেষ্টা করছে সে৷

পরিবারের সকলে পাশে থাকলেও দুঃস্বপ্নের বেড়াজালে জড়িয়ে পরে উর্মি৷ অনির্বান রয়েছেন উর্মির স্বামীর ভূমিকা৷ ‘ধনঞ্জয়’ ছবির পর ফের একসঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করতে চলেছেন মিমি-অনির্বান৷ এবং তনুশ্রী উর্মির ননদের চরিত্রে অভিনয় করছেন৷

জানা গিয়েছে, অরিন্দমের ‘খেলা যখন’এ চিত্রনাট্য সহ আরও অন্যান্য অনেক চমকই রয়েছে৷ যেমন আয়ূষ্মান খুরানার ব্লকবাস্টার ‘অন্ধধূন’ ছবিটির স্ক্রিপ্ট রাইটার অরিজিৎ বিশ্বাসকে তিনি এই ফিল্মের জন্য সাইন করেছেন৷