পোর্তো অ্যালেগ্রে: কলম্বিয়ার কাছে প্রথম ম্যাচে ০-২ গোলে হার৷ প্যারাগুয়ের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় ম্যাচ ১-১ গোলে ড্র৷ প্রথম দু’ম্যাচে জয় আধরা থাকায় স্বাভাবিকভাবেই চলতি কোপা আমেরিয়ার গ্রুপ লিগ থেকেই বিদায় নেওয়ার আশঙ্কা তৈরি হয়েছিল আর্জেন্তিনার৷ তবে লিগের তৃতীয় তথা শেষ ম্যাচে কোনও অঘটন ঘটতে দিলেন না মেসিরা৷ অতিথি দেশ কাতারকে ২-০ গোল হারিয়ে নকআউটের টিকিট নিশ্চিত করে আর্জেন্তিনা৷

প্যারাগুয়োর বিরুদ্ধে শেষ ম্যাচে গোল পেয়েছিলেন মেসি৷ তবে কাতারের জালে বল জড়াতে পারেননি৷ পরিচিত দৃষ্টিনন্দন ফুটবল খেলতে ব্যর্থ আর্জেন্তিনাও৷ তবে টিকে থাকার জন্য বহুকাঙ্খিত জয় তুলে নিতে অসুবিধা হয়নি মেসিদের৷ লিও গোল না পেলেও তাঁর অভাব ঢেকে দেন মার্টিনেজ ও আগুয়েরো৷ ম্যাচের দুই অর্ধে দু’টি গোল আসে তাঁদের পা থেকেই৷

কাতারের বিরুদ্ধে জয় তুলে নেওয়ায় লিগের ৩ ম্যাচের শেষে আর্জেন্তিনার পয়েন্ট দাঁড়ায় ৪৷ গ্রুপের অন্য ম্যাচে কলম্বিয়ার কাছে প্যারাগুয়ে পরাজিত হয় ১-০ গোলে৷ ফলে তিন ম্যাচের সব ক’টিতে জিতে ৯ পেয়েন্ট সংগ্রহ করে কলম্বিয়া৷ তারা গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে প্রবেশ করে৷ আর্জেন্তিনা দ্বিতীয় হয়ে আদায় করে নেয় শেষ আটের টিকিট৷ প্যারাগুয়ের পয়েন্ট দাঁড়ায় ৩ ম্যাচে ২৷ ‘সেরা তৃতীয়’র নিয়মে তাদের সামনেও কোয়ার্টার ফাইনালের রাস্তা খুলে যেতে পারে, যদি ‘সি’ গ্রুপের জাপান-ইকুয়েডর ম্যাচ ড্র হয়৷ ঠিক এভাবেই ‘এ’ গ্রুপে চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল (৭) ও রানার্স ভেনেজুেলার (৫) সঙ্গে তৃীতয় হয়ে পেরু (৪) পৌঁছে গিয়েছে শেষ আটে৷

মেসি, মার্টিনেজ ও সুয়ারেজের ত্রিফলা আক্রমণে কাতারের বিরুদ্ধে দল সাজান আর্জেন্তিনা কোচ সেবাস্তিয়ান৷ মেসিকে আটকানোর যে বাড়তি প্রচেষ্টা চোখে পড়ে কাতার রক্ষণের মধ্যে, সেই সুযোগেই গোল পেয়ে যান বাকি দু’ই আর্জেন্তাইন স্ট্রাইকার৷ ম্যাচের শুরুতেই ডিফেন্সের ভুলে গোল খেয়ে বসে কাতার৷ কোপায় আমন্ত্রিত দেশের ডিফন্ডাররা নিজেদর মধ্যে পাস বাড়াতে গিয়ে ভুলবশত বল তুলে দেয় মার্টিনেজের পায়ে৷ বল জালে রাখতে কোনও ভুল করেননি তিনি৷ অর্থাৎ ম্যাচের ৪ মিনিটেই মার্টিনেজের গোলে ১-০ এগিয়ে যায় আর্জেন্তিনা৷

দ্বিতীয় গোল পেতে মেসিদের অপেক্ষা করতে হয় ম্যাচের শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত৷ ৮২ মিনিটে দিবালার পাস থেকে গোল করে আগুয়েরো আর্জেন্তিনার ব্যবধান বাড়িয়ে ২-০ করেন৷ বাকি সময়ে দু’দলই প্রতিপক্ষের রক্ষণ ভাঙতে ব্যর্থ হওয়ায় ম্যাচের স্কোরলাইনো কোনও বদল হয়নি৷ কোয়ার্টার ফাইনালে গত দু’বারের ফাইনালিস্ট আর্জেন্তিনা মাঠে নামবে ভেনেজুয়েলার বিরুদ্ধে৷