মুম্বই: আইপিএল বেটিং চক্রে জড়িত অভিনেতা আরবাজ খান৷ শুক্রবার এই খবর ছড়িয়ে পড়তেই বলিউড ও ক্রিকেট মহলে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে৷ সত্যিই আরবাজ বেটিং চক্রের সঙ্গে যুক্ত কীনা জানতে শনিবার তাঁকে জেরার জন্য সমন পাঠায় থানে পুলিশ৷

এ দিন সকাল ১১টায় কালো বিএমডব্লুতে চড়ে থানে পুলিশ স্টেশনে আসেন আরবাজ খান৷ সঙ্গে ছিল তাঁর বডিগার্ড শেরা৷ গাড়ি থেকে বের হতেই সাংবাদিকরা ছেঁকে ধরেন আরবাজকে৷ একের পর এক প্রশ্ন উড়ে আসতে থাকে৷ কিন্তু আরবাজ তখন নির্বিকার৷ কোনও প্রশ্নের উত্তর না দিয়েই সটান ঢুকে যান থানার ভেতরে৷

অভিনেতা সলমন খানের ভাই ৫০ বছরের আরবাজ একজন চিত্র প্রযোজক। কয়েকদিন আগে আইপিএল বেটিংয়ে জড়িত থাকার অভিযোগে সোনু জালান নামে এক বুকিকে গ্রেফতার করে পুলিশ৷ তাকে জেরা করতেই উঠে আসে আরবাজের নাম৷ পুলিশের কাছে সে দাবি করে, আরবাজ তার কাছ থেকে তিন কোটি টাকা নিয়ে আইপিএলের একটি ম্যাচে বেটিংয়ে খাটায়৷ কিন্তু সেই টাকা আর ফেরত দেয়নি তাকে৷ এর পরই সোনু আরবাজের কাছে টাকা ফেরত চেয়ে হুমকি দিতে থাকে৷ অভিনেতাকে হুমকি দিয়ে বলে টাকা না দিলে তাঁর বেটিংয়ের কথা ফাঁস করে দেবে৷

জানা গিয়েছে আরবাজকে পাঁচ সদস্যের পুলিশের টিম জেরা করবে৷ সম্ভাব্য যে প্রশ্নগুলি করা হতে পারে তা হল তাঁকে কী সত্যিই সোনু হুমকি দিয়েছিল? কতদিন ধরে তিনি সোনুকে চেনেন? কোথাও ওই বুকির সঙ্গে আলাপ হয়েছে তাঁর? সোনুর সঙ্গে দাউদের লিঙ্ক রয়েছে এটা কি আরবাজ জানতেন? তার বয়ান রেকর্ড করার জন্য থানে পুলিশকে নির্দেশ পাঠানো হয়েছে৷