ফাইল ছবি

স্টাফ রিপোর্টার,কলকাতা: বেআইনি অর্থলগ্নি সংস্থা পৈলান গোষ্ঠীর কর্ণধার অপূর্ব সাহাকে গ্রেফতার করে সিবিআই৷ বুধবার তাকে বিধাননগর মহকুমা আদালতে তোলা হয়৷ বিচারক অপূর্ব সাহাকে তিন দিনের সিবিআই হেফাজতের নির্দেশ দেয়৷

সূত্রের খবর, সিবিআই এবার অপূর্ব সাহাকে নিজেদের হেফাজতে পেয়ে টানা জেরা করবে৷ আর এই জেরায়ই মিলতে পারে প্রভাবশালীদের নাম৷ সেই তালিকায় থাকতে পারে শাসক ও বিরোধী নেতাদের নাম৷ অভিযোগ, প্রভাবশালীদের জন্যই বিদেশে অনেক টাকা পাঠিয়ে থাকতে পারেন পৈলান গোষ্ঠীর কর্ণধার অপূর্ব সাহা৷ এমনকি নিজের নামে প্রচুর সম্পত্তি করে নিয়েছেন৷ এই সব তথ্যই জানতে হাতে পেতে চায় সিবিআই৷

গত মঙ্গলবার প্রায় তিন ঘণ্টা তাঁকে জেরা করা হয় সিবিআই দফতরে। সেদিন সিবিআই তদন্তকারী আধিকারিকদের সব প্রশ্নের উত্তর দেননি অপূর্ব সাহা৷ এমনকি সিবিআই তদন্তে সহযোগিতাও করছিলেন না পৈলান গোষ্ঠীর কর্ণধার৷ অনেক তথ্যই তিনি গোপন করে রেখেছিলেন৷ তারপরই অপূর্ব সাহাকে গ্রেফতার করে সিবিআই৷ ৫৭৫ কোটি টাকা কেলেঙ্কারির অভিযোগে পৈলান গোষ্ঠীর কর্ণধার অপূর্ব সাহাকে গ্রেফতার করল সিবিআই। তার সংস্থার বিরুদ্ধে বেআইনিভাবে বাজার থেকে প্রায় ৫৭৪ কোটি টাকা তোলার অভিযোগ রয়েছে৷

এর আগে চলতি বছরেই পৈলান গ্রুপের অন্যতম কর্ণধারকে গ্রেফতার করে সিবিআই। সিবিআই সূত্রে খবর, রিয়েল এস্টেটের নাম করে বাজার থেকে হাজার হাজার কোটি টাকা তোলার অভিযোগ পৈলান গ্রুপের বিরুদ্ধে। তদন্তে নেমেছিল সিবিআই।

তদন্ত চলাকালীন সিবিআই আধিকারিকদের নজরে আসে, ওই গ্রুপের অন্যতম কর্ণধার পলাতক। গোপন সূত্রে সিবিআই খবর পায়, তিনি দিল্লি থেকে কলকাতায় ফিরছেন। এরপরই ফাঁদ পাতে সিবিআই। কলকাতার শিয়ালদহ স্টেশন চত্বর থেকে আটক করে নিয়ে আসা হয় সিবিআই দফতরে৷