নয়াদিল্লি: ভারতের বাজারে চিনা অ্যাপ ব্যান হওয়ার পর থেকেই কার্যত আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে পিছিয়ে পড়তে শুরু করে চিন। একাধিক চিনা অ্যাপের বিরুদ্ধে সিদ্ধান্ত নেওয়া শুরু করে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে শুরু করে জাপানও। আর এবারে মোবাইল সংস্থা অ্যাপেল ২৯৮০০ টি চিনা অ্যাপ মুছে দিল চিনা অ্যাপ স্টোর থেকে। এর ফলে আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে আরও কিছুটা পিছিয়ে পরল চিন। অর্থাৎ এবারে চিনা অ্যাপের বিরুদ্ধে গেল অ্যাপেলও।

জানা গিয়েছে কেবল অ্যাপই নয়। এক সঙ্গে ২৬ হাজার গেমকেও মুছে দিয়েছে অ্যাপেল। ভারতে তথ্য নিরাপত্তা এবং গোপনীয়তা রক্ষার বিষয়টি জোর দেওয়ার কারণেই আগেই বাতিল করা হয়েছিল চিনা অ্যাপগুলি।

আর তারপর থেকেই ভারতের দেখানো পথ ধরে হেঁটেছিল বাকি দেশ গুলি। আর এবারে কার্যত পরোক্ষ ভাবে অ্যাপেল ও এই সিদ্ধান্তের পথে পা বাড়িয়েছে বলেই মনে করছেন অনেকেই। তবে এই বিষয়টি নিয়ে এখনই অ্যাপেলের তরফে কোন মন্তব্য করা হয়নি।

এর আগেই অ্যাপেল সকল গেম সংস্থাদের জুন মাসের শেষে সরকারি লাইসেন্স নম্বর জমা করার কথা জানিয়েছিল। কিন্তু তা না করার জেরেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। জুলাইয়ের প্রথম সপ্তাহ থেকেই এই মোবাইল প্রস্তুতকারক সংস্থা বেশ কিছু পদক্ষেপ নেওয়া শুরু করেছিল। আর তারপরেই এই সিদ্ধান্ত তাদের তরফে নেওয়া হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। তবে এই বছরেই কেন এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হল তা এখনও স্পষ্ট নয়।

তবে এই সিদ্ধান্তের ফলে ছোট এবং মাঝারি গেম প্রস্তুত কারক সংস্থা গুলি কিছুটা হলেও অসুবিধার মধ্যে পড়বে বলে মনে করা হচ্ছে। কিন্তু যেহেতু লাইসেন্স নিয়ে সমস্যা দেখা দেওয়ার জেরেই এই ঘটনা ঘটেছে সেই কারণে বিষয়টি তাদের আপাত ভাবে মেনে নিতে হবে বলে মনে করা হচ্ছে। যদিও জানা গিয়েছে দীর্ঘ দিন ধরে চিনা প্রশাসন গেমের একাধিক সংবেদনশীল বিষয় গুলি সরিয়ে ফেলার জন্য চেষ্টা করে চলেছে। তবে এই সিদ্ধান্ত চিনা অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা ফেলবে বলে মনে করছেন অনেকেই।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও