সৌপ্তিক বন্দ্যোপাধ্যায়, কলকাতা : ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধিতে বাস মালিক সংগঠনের প্রতিবাদে পকেট ‘কাটবে’ সাধারণ মানুষের। ছোট খাটো ‘পকেটমারি’ হবে না। পকেটমারির নুন্যতম পরিমাণ হতে পারে ২০০-২৫০ টাকা। সৌজন্যে ওলা , উবেরের মতো অ্যাপ ক্যাব সংস্থাগুলি।

সকালে বেসরকারি বাস চলবে সকাল আটটা থেকে এগারোটা পর্যন্ত। বিকালে চারটে থেকে সাড়ে ছ’টা পর্যন্ত। সবমিলিয়ে ঘণ্টা ছয়েক বাস চলাচল করবে শহরের রাস্তায়। লক্ষ লক্ষ মানুষ চাকুরি বা জীবিকার সূত্রে বাস ব্যবহার করেন। সকালে নাকে মুখে গুঁজে অনেকেই আটটার বাস ধরার চেষ্টা করবেন। সমস্যা শুরু হওয়ার প্রবল সম্ভাবনা রয়েছে ঘড়ির কাঁটা সাড়ে ৮টা থেকে ৯টা বাজলেই। সিঁড়িতে দাঁড়িয়ে কিংবা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ঝুলে ঝুলে যারা অফিস পৌঁছানোর তাঁরা পৌঁছে গেলেন। এবার যারা পারলেন না তাঁরা কি করবেন ? তাঁদের উপায় হয় ব্রেক জার্নি, নয়তোবা অ্যাপ ক্যাব। যারা সুখী সুখী অফিসে যেতে অভ্যস্ত তাঁদেরও ভরসা অ্যাপ ক্যাব। ঠিক এই সময়টাতেই পকেট কাটা শুরু হবে অ্যাপ ক্যাবের।

রাজ্য সরকার বলেই খালাস। আদতে সার্জ কমায়নি ওলা উবেরের মতো অ্যাপ ক্যাব সংস্থাগুলি। চাহিদা বেশী হলেই ৪৫ শতাংশের উপরে চলে যায় সার্জ চার্জ। এমনটাই অভিযোগ অ্যাপ ক্যাব ব্যবহারকারীদের। কিন্তু নিরুপায় হয়ে সেটাই দিতে হয় তাঁদের। সোম থেকে বুধ অফিস টাইমে ওলা উবেরের চাহিদা বেশী থাকবে। স্বাভাবিক ভাবেই সার্জ চার্জ কোথায় গিয়ে ঠেকবে তা বলা যাচ্ছে না। সুমন মণ্ডল, একটি বেসরকারি জেনারেটর কোম্পানির সেলস ডিপার্টমেন্টে কাজ করেন। কাজের জন্য অনেক সময় নির্ভর করতে হয় ওলা উবেরের উপরেই। সোমবার থেকে তিন দিন যে পকেট থেকে ভালোরকম টাকা খসবে সেটা স্পষ্ট বুঝতে পারছেন বলে জানাচ্ছেন তিনি। আইটি ফার্মে রয়েছে সুব্রত নাথ। তিনি বলেন, “সল্টলেক পর্যন্ত ঝুলে ঝুলে যাওয়া সম্ভব নয়। ওলা, উবের হাই চার্জ নেবে। ভালোই পকেট খালি হবে বুঝতে পারছি। কি আর করা যাবে। তিন দিনে অন্য কোনও উপায় নেই।”

বর্তমানে ওলা বা উবের প্রতি কিলোমিটারে ৬টাকা করে ভাড়া নয়। অ্যাপ ক্যাব সংগঠনের কর্তা ইন্দ্রনীল বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “দেখুন আগামী তিন দিন যাত্রীদের কি সুযোগ সুবিধা আলাদাভাবে দেবে সেটা কোম্পানি যানে। কিন্তু আমাদের এমনিতেই প্রচুর টাকা মার গিয়েছে। ডিজেলের দাম বেড়েছে। সরকারকে জানানো হয়েছিল প্রতি কিলোমিটারে ভাড়া নুন্যতম ১৮টাকা করতে। সেই দাবি মানা হয়নি। এমনভাবে চলতে পারে না। আমরা মিটিংয়ে বসছি সোমবার। সেখানেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়ে যাবে মিটিং আমরা প্রতি কিলোমিটারে ভাড়া ৬ টাকা নেব না কি সেটা ১৮ টাকা নেব।”

ছয় থেকে ১৮ হলে আগামী দিনে অ্যাপ ক্যাবের ভাড়া যে কোনও জায়গায় পৌঁছতে পারে তা পরিষ্কার। সোমবার থেকেই সেই দাম লাগু হলে বাস ‘বনধের’ বাজারে মানুষের ভোগান্তি যে চরমে পৌঁছবে তা বলা যেতেই পারে।

সপ্তম পর্বের দশভূজা লুভা নাহিদ চৌধুরী।