ফাইল ছবি৷

স্টাফ রিপোর্টার,কলকাতা: ২৫ ডিসেম্বর বড় দিন৷ ইতিমধ্যেই উৎসবে মেতে উঠেছে মানুষ৷ আর এই উৎসবের দিনে দু‘দিনের ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে ওলা ও উবের এর একটি সংগঠন৷ ফলে শহর ও শহরতলির রাস্তায় অ্যাপ নির্ভর ওলা ও উবের এর পরিষেবা পাওয়া যাবে না৷

জানালেন, ওয়েষ্ট বেঙ্গল অনলাইন ক্যাব ওপরেটরস গিল্ডের সাধারণ সম্পাদক ইন্দ্রনীল বন্দ্যোপাধ্যায়৷ অভিযোগ, ওলা ও উবের এর মালিক পক্ষের মদতে পুলিশি জুলুমের প্রতিবাদে এই ধর্মঘট৷ সংগঠনের ৫০০০ এরও বেশি চালক ধর্মঘটে সামিল হবে৷

সোমবার দুপুরে ওয়েষ্ট বেঙ্গল অনলাইন ক্যাব ওপরেটরস গিল্ডের শতাধিক সদস্য সল্টলেকের উবের এর অফিসে যান৷ তাদের দাবি, কলকাতা ও শহরতলিতে যেখানে হলুদ ট্যাক্সি ১৫ টাকা মিটারে চলছে সেখানে ওলা ও উবের চলছে ১০-১২ টাকা মিটারে৷ তারপরও মালিক পক্ষ চালকদের যখন তখন বসিয়ে দিচ্ছেন৷ এছাড়া ওলা ও উবের এর মালিক পক্ষের মদতে চলছে পুলিশের জুলুমবাজি৷

এদিনও সল্টলেকের অফিস থেকে সংগঠনের সদস্যদের পুলিশ ঘাড় ধাক্কা দিয়ে বের করে দিয়েছে বলে অভিযোগ৷ বিধাননগর পুলিশ কমিশনারেট এর পুলিশের এই অত্যাচারের বিরুদ্ধে সোমবার বিকাল থেকেই বিমান বন্দর এলাকায় অ্যাপ ক্যাব চালকদের একটিবড় অংশ যাত্রী পরিষেবা বন্ধ করে দিয়েছে৷ ফলে সমস্যায় পড়েছেন সাধারন মানুষ৷

পুলিশ সূত্রে খবর, সল্টলেকের উবেরের অফিসে বিক্ষোভের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়েছিল কিন্তু সংগঠনের সদস্যদের ঘাড় ধাক্কা দিয়ে বের করে দেওয়া হয়নি৷ তাদেরকে ওখান থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে৷

ওয়েষ্ট বেঙ্গল অনলাইন ক্যাব ওপরেটরস গিল্ডের সাধারণ সম্পাদক ইন্দ্রনীল বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, উৎসবের সময় ধর্মঘটের পথে না যেতে চালকদেরকে অনুরোধ করেছিলাম৷ কিন্তু সোমবারে পুলিশের অত্যাচারের পর চালকরা ধর্মঘটের পথে যেতে বাধ্য হয়েছে৷ ফলে আগামী ২৫ ও ২৬ ডিসেম্বর সংগঠনের প্রায় ৫০০০ চালক ছাড়াও পরোক্ষভাবে আরও কয়েক হাজার অ্যাপ ক্যাব চালক ধর্মঘটে সামিল হবেন৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।