কলকাতা- নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের প্রতিবাদে উত্তপ্ত দেশের বিভিন্ন অংশ। লোকসভা, রাজ্যসভায় বিল পাশ হওয়ার পরে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দও এই বিলে সম্মতি দেন। বিলটি আইনে পরিণত হয়। তার পরেই সারা দেশ জুড়ে এই আইনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ শুরু হয়েছে। এই প্রতিবাদের আঁচে এই মুহূর্তে পশ্চিমবঙ্গও অশান্ত। ভাঙচুরের মাধ্যমে মানুষ বিক্ষোভ দেখানোয় পরিস্থিতি ক্রমশ অশান্ত হয়ে উঠছে। এই নিয়ে দেশের বহু মুখ্যমন্ত্রী মুখ খুলেছেন। অভিনেত্রী তথা পরিচালক অপর্ণা সেনও এই পরিস্থিতি নিয়ে একটি টুইট করেছেন।

তিনি লেখেন, নোট বাতিল, দুর্বল অর্থনীতি, বেড়ে চলা বেকারত্ব, কাশ্মীর, ক্যাব, অসম, এনআরসি-র জেরে প্রায় পরিস্থিতি খুব খারাপ। সব কিছুতেই পরিস্থিতির অবনতি হচ্ছে। বিশ্ববিদ্যালয়ে হামলা হচ্ছে। ভারত টুকরো হচ্ছে, রক্তাক্ত হচ্ছে।

এই টুইটটি মুহূর্তে ভাইরাল হয়। ক্যাবের প্রতিবাদে সরব হয়েছেন জামিয়া মিলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারাও। বিশ্ববিদ্যালয়ে বিনা অনুমতিতে ঢুকে ছাত্রছাত্রীদের মারধরের অভিযোগ উঠেছে পুলিশের বিরুদ্ধে। এমনকী এক পড়ুয়ার মৃত্যুর খবরও শোনা যাচ্ছে। অপর্ণা সেনের মেয়ে তথা অভিনেত্রী কঙ্কনা সেনশর্মা এই প্রসঙ্গে একটি টুইট করেন। তিনি লেখেন, আমরা পড়ুয়াদের সঙ্গে আছি। দিল্লি পুলিশকে ধিক্কার।

প্রসঙ্গত, এদিকে রাজ্যের অবস্থা বেগতিক দেখে কালীঘাটের বাড়িতে জরুরি বৈঠকে বসেছেন মুখ্যমন্ত্রী। বৈঠকে রাজ্যের সাম্প্রতিক পরিস্থিতি নিয়ে সার্বিক আলোচনা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। সেখানে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্য পুলিশকে সতর্ক এবং সক্রিয় থাকার নির্দেশ দিয়েছেন। এছাড়াও, হাঙ্গামা হলেই কড়া হাতে মোকাবিলা করার জন্যে পুলিশ-প্রশাসনকে নির্দেশ দিয়েছেন বলে জানা যাচ্ছে।