মুম্বই: একজন সেনার পরিবারের মনের অবস্থা কেমন হয়, সেটা আমি জানি। এমনটাই উল্লেখ করলেন সেনা পরিবারের মেয়ে তথা বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী অনুষ্কা শর্মা। তিনি জানান, পুরো বিষয়টা তিনি বোঝেন কারণ, তাঁর বাবা কার্গিল যুদ্ধে লড়াই করেছেন।

‘অ্যা দিল হ্যায় মুস্কিল’ -এর বিতর্ক নিয়ে কথা বলতে গিয়েই একথা বলেন তিনি। অভিনেত্রীর কথায়, সীমান্তে যে সেনা লড়াই করে তার জন্য একটা সিনেমায় পাকিস্তানি অভিনেতা অভিনয় করলেন কিনা তাতে কিছু যায় আসে না।

ভারতীয় টেস্ট ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলির গার্লফ্রেন্ড অনুষ্কার কথায়, ‘ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা থেকে বলি। কার্গিলের লড়াইয়ের সময় জম্মু ও কাশ্মীরে ছিলেন বাবা। মনে পড়ে মায়ের চোখ থাকত রোজ টিভির পর্দায় টিকারের দিকে, যাতে নিহত জওয়ানদের নাম যেত। আমি জানি, জওয়ানদের বা তাদের পরিবারদের মনের অবস্থা কী হয়। অ্যায় দিল নিয়ে গোটা বিতর্কে মানুষের ভাবাবেগ বুঝতে পেরেছি। কিন্তু আমি জানি, সীমান্তে যাঁরা লড়ছেন, তাঁরা পাকিস্তানি তারকার অভিনয় করা সিনেমার রিলিজ নিয়ে আদৌ চিন্তিত নন, কেননা এতে তাঁদের কিছু আসে যায় না। তাঁরা তো আসল লড়াই করছেন, যার কাছে একটা ছবি তুচ্ছ ব্যাপার।’

প্রসঙ্গত, উরি হামলার প্রেক্ষাপটে রাজ ঠাকরের দল মহারাষ্ট্র নবনির্মাণ  হুমকি দেয়,  পরিচালক করণ জোহরের ছবি অ্যায় দিল-এ পাকিস্তানি শিল্পী ফাওয়াদ খান রয়েছেন বলে সেটি রিলিজ করতে দেওয়া হবে না। উরির ঘটনার জবাবে ভারতে পাক কলাকুশলীদের অভিনয়ও নিষিদ্ধ করার দাবি জানায় তারা।