স্টাফ রিপোর্টার, বীরভূম: কু-কথার জন্যই বিখ্যাত তিনি৷ প্রকাশ্য মঞ্চ থেকে কখনও পুলিশকে বোমা মারার জন্য দলীয় কর্মীদের উদ্বুদ্ধ করেছেন৷কখনও বা বলেছেন-বিরোধীদের ঘর জ্বালিয়ে দিন৷তিনি অনুব্রত মণ্ডল৷যিনি স্বঘোষিতভাবে বলে থাকেন- ‘কোনওদিন কারও কাছে মাথা নত করিনি৷ করবও না৷’’

সোমবার গায়ে গেরুয়া পাঞ্জাবি চড়িয়ে জনতাকে সাক্ষী রেখে বীরভূমের ডাকবাংলো মাঠে সেই তিনি মাথা নত করলেন! সৌজন্যে, পুরোহিত সম্মেলন৷ জেলার বিভিন্ন প্রান্তের ১৫হাজার পুরোহিতের হাতে নামাবলী, নগদ দক্ষিণা, গীতা, রামকৃষ্ণ-সারদা-বিবেকানন্দের ছবি ও কথামৃত দিয়ে লুচি, ছোলার ডাল, কুমড়ো-পটল-আলুর তরকারি, বোঁদে, মিষ্টি এবং ফল খাওয়ালেন। প্রত্যেকের বাড়িতে ১টি করে গাভী পৌঁছে দেওয়ারও প্রতিশ্রুতি দিলেন৷এবং সবশেষে ১৫ হাজার পুরোহিতের সামনে করজোড়ে মাথা নত করে মৃদু সুরে বললেন, ‘‘সাধ্যমতো চেষ্টা করেছি৷ তবু আপ্যায়নে আমার কোনও ভুল হয়ে থাকলে ক্ষমা করবেন৷’’

আচমকা পুরোহিত সম্মেলনের আয়োজন কেন? রাজনৈতিক মহলের মতে, জার্সি বদলে বীরভূমের মাটি চষে বেড়াচ্ছেন মুকুল রায়৷ইতিমধ্যেই তৃণমূলের একাংশ নেতা, কর্মী তার দিকে ভিড়েছেন৷ প্রকাশ্যেই অনুব্রতকে মুকুল রায় হুঁশিয়ারি দিয়েছেন, ‘‘রাজ্যের অন্যত্র কি হবে বলতে পারব না, তবে এটা চ্যালেঞ্জ করে বলছি- ত্রিস্তর পঞ্চায়েত বীরভূম থেকে তৃণমূলকে মুছে ফেলবই৷’’

দলীয় সূত্রের খবর, বীরভূমের হাঁসন বিধানসভা কেন্দ্রের কংগ্রেস বিধায়ক মিলটন রশিদ পুরোহিতদের ভাতা দেওয়ার জন্য মুখ্যমন্ত্রীর কাছে আবেদন জানান৷ মুখ্যমন্ত্রী তা গ্রহণও করেন৷ রামপুরহাটে পুরোহিতদের সম্মেলন হয়। সেখানে হাজির ছিলেন রশিদ। পুরোহিতদের জেলা কমিটির মাথায় তাঁকে রেখে জেলায় সম্মেলন করার নির্দেশ দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ সূত্রের খবর, এই খবর ছড়িয়ে পড়তেই পুরোহিতদের একাংশ তৃণমূল ছেড়ে কংগ্রেসের দিকে ঝুঁকছিলেন। এরপরই সিদ্ধান্ত বদলে অনুব্রতর নেতৃত্বে ব্রাহ্মণ সম্মেলন আয়োজনের নির্দেশ দেন স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী৷

জেলার রাজনৈতিক মহলের মতে, বঙ্গে গেরুয়া হাওয়া রুখতেই নজিরবিহীনভাবে ব্রাহ্মণ সম্মেলনের আয়োজন৷ যদিও এসব সমীকরণ মানতে নারাজ অনুব্রত৷ তাঁর ব্যাখ্যা, ‘‘এখনকার ব্রাহ্মনবাড়ির ছেলেরা আর পুরোহিত হতে চাইছেন না৷ কিন্তু সমাজে পুরোহিতের গ্রহণ যোগ্যতা রয়েছে৷ পুরোহিত ছাড়া সমাজ চলতে পারে না৷জন্ম, অন্নপ্রাশন, বিবাহ থেকে মৃত্যু এমনকি নতুনঘর প্রবেশ, পুজোপার্বন- কোনওটাই পুরোহিত ছাড়া হয় না৷তাই এই পুরোহিত সম্মেলনের আয়োজন৷’’