মুম্বই- ইন্ডিয়ান আইডল থেকে বিদায় নিয়েছেন গায়ক তথা সঙ্গীত পরিচালক অনু মালিক। ২০১৮-য় হ্যাশট্যাগ মিটু বাণে বিদ্ধ হয়েছিলেন তিনি। তার পর থেকেই তাঁর পিছু ছাড়েনি বিতর্ক। তাই এবার নিজে থেকেই ইন্ডিয়ান আইডল থেকে সরে গেলেন অনু মালিক। এই রিয়্যালিটি শো থেকে অনু মালিকের সরে যাওয়াকে মহিলাদের জয় বলে মনে করছেন সোনা মহাপাত্র।

সোনা জানিয়েছেন, যে মহিলারা যৌন হেনস্থার শিকার, তাঁদের কাছে অনু মালিকের সরে যাওয়া বিরাট জয়। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের কাছে সোনা বলেন, এটা সত্যিই দারুণ খবর। সোনি টিভি এই কাজটা করতে অনেকটা সময় নিল। কিন্তু আমি খুশি যে, শেষ পর্যন্ত তিনি (অনু মালিক) বেরিয়ে গিয়েছেন। এটা সারা দেশের কাছে একটা লড়াই। অনেক মানুষ আছেন যাঁরা সত্যিই দেখতে চান না ন্যাশনাল টিভি চ্যানেলে বসে অনু মালিক নিজের ব্যাপারে বড়াই করছেন এবং ভুল বার্তা দিচ্ছেন।

সোনা আরও বলেন, আমি যা ঠিক সেটার জন্যই লড়ছিলাম। এই খবরটা শোনার পরে মনে হচ্ছে সবার জয় হয়েছে। শুধু আমি নই। অন্যান্য যে সব মহিলাদের সঙ্গে উনি খারাপ আচরণ করেছিলেন তাদের কাছেও এটা জয়। আমাদের লড়াই এখানেই থামেনি। এটা শুরু। আমরা বসে থাকব না। আমাদের সঙ্গে এমন আচরণ মানুষকে করার সুযোগ দেব না।

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালে অনু মালিকের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ আনেন গায়িকা সোনা মহাপাত্র। আরও দুই গায়িকা শ্বেতা পণ্ডিত ও নেহা বসিনও একই অভিযোগ আনেন। তাই ২০১৮-র ইন্ডিয়ান আইডল থেকে বাদ পড়েছিলেন অনু মালিক। এবছরও বিচারকের আসন থেকে নিজেই বিদায় নিলেন তিনি।