স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: স্বাস্থ্যপরীক্ষা পর আরও একটি উড়ালপুল তিনদিন বন্ধ থাকবে৷ মেরামতির জন্য আগামী ১৩-১৫ অগাস্ট বন্ধ থাকবে বাঘাযতীন উড়ালপুল৷ ফলে শহরে ব্যাপক যানজটের আশঙ্কা রয়েছে৷

গড়িয়া পাটুলি থেকে বাইপাস হয়ে যারা রুবির দিকে যাওয়া আসা করেন তাদের কাছে বাঘাযতীন উড়ালপুলটির গুরুত্ব অনেক৷ এবার সেই উড়ালপুলের একাংশ বন্ধ রেখে মেরামত চলবে৷ স্বাভাবিকভাবেই ওই পথে যারা যাতায়াত করেন তাদের সমস্যা হবে৷ যদিও পুলিশ সূত্রে খবর, উড়ালপুলের একটি দিক বন্ধ করে দেওয়া হবে৷ তবে অন্যদিকটি খোলা থাকবে৷ সেই দিক দিয়ে উভয় দিকে গাড়ি চলাচল চালু রাখা হবে৷

অন্যদিকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ১৫ – ১৮ অগস্ট পর্যন্ত ৪ দিন বন্ধ রাখা হবে শিয়ালদহ ফ্লাইওভার৷ তার ফলে ওই সময় শহরের বেশ কিছু রাস্তায় যান বাহনের চাপ বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে৷ যেমন সূর্য সেন স্ট্রিট, ক্রিক রো,এস এন ব্যানার্জী রোড,সেন্ট্রাল অ্যাভিনিউ, ইএম বাইপাসসহ বেশ কিছু রাস্তা৷ ট্রাফিক পুলিশ সূত্রে খবর, মৌলালী থেকে যে সব গাড়ি শিয়ালদহ ফ্লাইওভার দিয়ে রাজাবাজারের দিকে যেত সে সব গাড়ি এস এন ব্যানার্জী রোড ও ক্রিক রো দিয়ে ঘুরিয়ে দেওয়া হবে৷ অন্যদিকে রাজাবাজারের দিক থেকে সে সব গাড়ি মৌলালী আসতো তা ঘুরিয়ে দেওয়া হবে সূর্য সেন স্ট্রিট দিয়ে৷ কলেজস্ট্রিট থেকে যে সব গাড়ি মৌলালী যেত সেই সব গাড়িও নিয়ন্ত্রণ করা হবে৷

উল্লেখ্য, কিছুদিন আগেই উলটোডাঙা ফ্লাইওভারে বড়সড় ফাটল ধরা পড়ে। যার ফলে সে সময় তিনদিনের জন্য ফ্লাইওভার বন্ধ করে দিয়েছিল পুলিশ৷ সেই দিনগুলোতে ই এম বাইপাস,ভিআইপি রোড ও পার্শ্ববর্তী এলাকায় ব্যাপক যানজটের সৃষ্টি হয়েছিল৷ যদিও যুদ্ধকালীন তৎপরতায় ট্র্যাফিক নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করছেন পুলিশ আধিকারিকরা। শেষে তিন দিন পর ফ্লাইওভারের একটি ফ্ল্যাঙ্ক খুলে দেওয়া হয়৷ তবে এখনও বন্ধ রয়েছে বিমানবন্দর থেকে কলকাতাগামী ফ্ল্যাঙ্কটি৷ উলটোডাঙার পর এবার শিয়ালদহ ফ্লাইওভারটি বন্ধ করে দিলে যে শহরে যানজট হবে তা বলার অপেক্ষা রাখে না৷

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ