ফাইল ছবি

আগরতলা: প্রথমে বিজেপিকে বড় ধাক্কা দিয়ে দল ছেড়েছেন সহ সভাপতি পদে থাকা সুবল ভৌমিক৷ তিনি ফিরে গিয়েছেন পুরনো দল কংগ্রেসে৷ এবার সেই পথ ধরলেন উপজাতি সংগঠন তথা সরকারের প্রধান শরিক দল আইপিএফটি সহ সভাপতি৷ সংবাদ মাধ্যমে বিস্ফোরক বয়ান দিয়েছেন উপজাতি নেতা অনন্ত দেববর্মা৷ তিনি জানিয়েছেন অন্তত তিন হাজার কর্মী সমর্থক নিয়ে কংগ্রেসে যোগ দিতে চলেছেন৷

বিজেপি জোট সরকারে আসার আট মাসের মধ্যে এক কোটি টাকা বাঁকা পথে কামিয়ে নিয়েছে বিভিন্ন নেতা। এমনই অভিযোগ করেছেন শীর্ষ উপজাতি নেতা অনন্ত দেববর্মা৷ তাঁর আরও অভিযোগ, প্রতিশ্রুতির কিছুই পালন করতে পারছেন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের সরকার৷ অন্যদিকে সরকারের প্রতিশ্রুতি ভঙ্গের অভিযোগ তুলেছেন আইপিএফটি-এর পদত্যাগী সহ সভাপতি৷

ফাইল ছবি

লোকসভা নির্বাচনে ত্রিপুরার দুটি আসন৷ এই দুটি আসনেই সরকারে থাকা বিজেপির বিরুদ্ধে প্রার্থী দিয়েছে শরিক দল আইপিএফটি৷ পদত্যাগী শীর্ষ উপজাতি নেতার প্রশ্ন- গত ৫০ বছরে বড়োল্যান্ড হয়নি৷ পাঁচ বছরে কিভাবে ত্রিপরাল্যান্ড হবে? পাশাপাশি তিনি জানান, রাজা প্রদ্যোৎ কিশোর দেববর্মার সঙ্গে আলোচনা করেই তিনি কংগ্রেসে ফিরছেন৷

পড়ুন: প্রধানমন্ত্রীর মতো বরের দরকার নেই: মানিক সরকার

ইন্ডিজেনাস পিপলস ফ্রন্ট অফ ত্রিপাল্যান্ড অর্থাৎ আইপিএফটি ত্রিপুরার একটি অংশে উপজাতি অধ্যুষিত স্বশাসিত এলাকার দাবিকে সামনে রেখেই বিজেপির সঙ্গে হাত মিলিয়েছিল৷ গত বিধানসভা নির্বাচনে সেই জোটের গাছে পরাজিত হয় দীর্ঘ দু দশকের বেশি ক্ষমতায় থাকা বামফ্রন্ট৷ নতুন বিজেপি ও আইপিএফটি জোট সরকারে আসার পর ১৪ মাসেও সেই ত্রিপ্রাল্যান্ড নিয়ে কোনও কিছুই বাস্তবায়িত হয়নি৷ এমনই অভিযোগ করেছেন পদত্যাগী শীর্ষ উপজাতি নেতা অনন্ত দেববর্মা৷ এরপরেই আলোড়ন ছড়িয়েছে আগরতলায়৷ রাজনৈতিক মহলের ধারণা, এর ফলে উপজাতি সংগঠনের ভোট ব্যাংকে ধস নামতে পারে৷

আগেই বিজেপি ছেড়েছে সহ সভাপতির পদে থাকা সুবল ভৌমিক৷ তিনি কংগ্রেসে ফিরেই দলের তরফে পশ্চিম ত্রিপুরা লোকসভার প্রার্থী হয়েছেন৷ বিভিন্ন জনসভা থেকে সরাসরি বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে সমালোচনায় সরব হয়েছেন৷

সদ্য ত্রিপুরা প্রদেশ কংগ্রেসের সভাপতি হয়েছেন রাজা প্রদ্যোৎ কিশোর দেববর্মা৷ তিনি হাল ধরেই সংগঠন চাঙ্গা হতে শুরু করেছে৷ দলে ফিরেছেন সাসপেন্ডেড নেতা তথা প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী সমীর রঞ্জন বর্মন৷ বিভিন্ন উপজাতি সংগঠনেও রাজা প্রদ্যোতের প্রভাব বেড়েছে৷ উপজাতি এলাকায় তাঁর জনসভা ঘিরে রাজনৈতিক মহলের ধারণা, নির্বাচনে কড়া চ্যালেঞ্জ ছুঁড়বে কংগ্রেস৷ এদিকে আগরতলার রাজনৈতিক মহলের গুঞ্জন৷ রাজা প্রদ্যোতের হাত ধরেই ফের পুরনো দল কংগ্রেসে ফিরতে চলেছেন বর্তমান বিজেপি সরকারের স্বাস্থ্যমন্ত্রী তথা ত্রিপুরায় রাজনৈতিক পরিবর্তনের অন্যতম নেতা সুদীপ রায়বর্মন৷ তাঁর পিতা সমীর রঞ্জন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী৷ প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতির দাবি, রাজ্যে বিজেপি শিবিরে অচিরেই ধস নামতে চলেছে৷ একাধিক মন্ত্রী ফের ফিরছেন কংগ্রেসে৷